SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০৮-০১-২০১৮ ২১:১০:০৯

মায়ের কোলে নয়, ভাগ্যের পরিহাসে ঠাঁই হলো স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে!

feni-child-jpgedt

ফেনীতে ২ মাসের এক শিশু কন্যাকে জেলা সদর হাসপাতালের সিঁড়ির নিচ থেকে অজ্ঞাত অবস্থায় উদ্ধারের ১৭ দিন পর সোমবার তাকে গণমাধ্যমের সামনে উপস্থাপন করা হয়। শিশুটির জন্মগত ঠোটকাঁটা থাকলেও এরইমধ্যে প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে স্বাভাবিকতা ফিরে এসেছে শিশুটির চেহারায়। প্রথম দিকে কেউ আগ্রহ প্রকাশ না করলেও শিশুটিকে দত্তক নিতে এখন আগ্রহ একাধিক দম্পতির। শিশুটির পিতা-মাতার সন্ধান পাওয়াসহ বিকল্প প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন।

মায়ের কোলে থাকার কথা থাকলেও ফেনীর একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের এ কর্মীর কোলে ঠাই হয়েছে ফেনীর আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের পুরাতন ভবনের সিঁড়ির নিচ থেকে কুড়িয়ে পাওয়া অজ্ঞাত এই শিশুটির। সবাই মিলে নাম রাখেন জান্নাত নূর। গত ২১ ডিসেম্বর সকালে কান্না টের পেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে রাখেন। সেই থেকে শিশুটির পরিচর্যায় এগিয়ে আসেন ফেনীর একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। ধারনা করা হয়, শারীরিক ত্রুটি থাকায় শিশুটিকে সেখানে রেখে সটকে পড়ে তার স্বজনদের কেউ। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রচার হওয়ার পর স্মাইল ট্রেইন নামের একটি সংস্থা ফেনীর সিভিল সার্জনের কাছে বিনামূল্যে চিকিৎসা করানোর আগ্রহ প্রকাশ করেন। গত ২৫ ডিসেম্বর  ঢাকায় নিয়ে তাদের প্রথম অস্ত্রোপচারে পর এখন অনেকটাই স্বাভাবিক শিশু জান্নাত নূর।

উই ক্যান চেঞ্জ ইয়ুথ সোসাইটির উপদেষ্টা সদস্য আশরাফুল আলম গিটার বলেন, 'যতক্ষণ না লিগ্যাল বাবা-মার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে ততদিন আমরা ওর পাশে রাখবো।'
        
উই ক্যান চেঞ্জ ইয়ুথ সোসাইটির সমন্বয়ক মনজিলা মীমী বলেন, 'যদি প্রকৃত বাবা-মা পাওয়া না যায় তাহলে, কোনও ভালো অভিভাবক তাকে নিতে চায় তাদের কাছে হস্তান্তর করা হোক।'

অন্যদিকে ফেনীর জেলা সদর হাসপাতালের আয়োজনে শিশুটিকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা থেকে আসা শিশু জান্নাত নূরকে চিকিৎসা দেয়া স্মাইল ট্রেইনের প্লাস্টিক সার্জন অধ্যাপক ডাঃ বি,কে দাস(বিজয়) বলেন, 'সঠিক চিকিৎসায় পুরোপুরি স্বাভাবিকতা ফিরে পাবে সে।'

সিভিল সার্জন ডাঃ হাসান শাহরিয়ার কবির বলেন, 'চিকিৎসা দেয়ার পাশাপাশি শিশুটির বিষয়ে জেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সঙ্গে সমন্বয় করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।'
            
নিজের বাবা-মা ফেলে রেখে গেলেও এখন পর্যন্ত ফেনীর ৯ দম্পতি এই শিশু জান্নাত নূরকে নিজেদের দত্তক নিতে কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করেছেন বলে জানিয়েছেন ফেনীর সিভিল সার্জন।