SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ০৪-০৮-২০১৫ ০০:২৫:১১

'অনেক কিছু শেখা থেকে বঞ্চিত হলো খেলোয়াড়রা'

x-captain-reax-1-jpg-eeeeee

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বেশ কিছু অর্জন করলেও বৃষ্টির কারণে খেলা না হওয়ায় টাইগাররা অনেক কিছু শেখা থেকে বঞ্চিত হয়েছে বলে মনে করেন সাবেক দুই অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন ও মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

পাশাপাশি দীর্ঘ পরিসরের ম্যাচের পরবর্তী সিরিজগুলোতে ব্যাটসম্যানদের বড় ইনিংসের দিকে নজর দেয়া উচিত বলেও মত তাদের। এদিকে এ সিরিজে করা ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে তা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কাজে লাগানোর পরামর্শ সাবেকদের।

টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা উভয় দলকেই কাঁদিয়ে শেষ হাসি হাসলো বৃষ্টি। তবে এমন ফলাফল যে হতে যাচ্ছে, সেই ধারণা থাকলেও হয়ত প্রস্তুত ছিলো না দু'দলই।

টানা বৃষ্টির কারণে ম্যাচ ড্র হওয়ায় ৬ পয়েন্ট যোগ হয়েছে বাংলাদেশের নামের পাশে। তবে সব ক'দিন খেলা না হওয়ায় অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন থেকে বঞ্চিত হতে হয়েছে তরুণ টাইগারদের। কারণ দুই টেস্টে ১০ দিনের ৬ দিনই বল মাঠে গড়ায়নি। যা হলে হয়তো বিশ্বসেরাদের বিপক্ষে তরুণ টাইগারদের অভিজ্ঞতার ঝুলিটা আরো সমৃদ্ধ হত। তবে এ সিরিজ থেকে মুশফিক-সাকিবদের অর্জনের খাতাটাও যে কম নয়, সে কথাও মনে করিয়ে দিলেন দুই সাবেক অধিনায়ক।

খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, তরুণ বোলারদের জন্য এখান থেকে অনেক কিছু শেখার ছিলো। তবুও আমি মনে করি, এই টেস্টে লিড নেওয়াটাও একটি মোরাল ভিক্টরি। তাছাড়াও টিমের মধ্যে যথেষ্ট কনফিডেন্ট বিল্ড আপ হয়েছে'।

আর মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, 'তাদেরকে প্রথম টেস্টে ২৪৮ রানে অলআউট করা আমাদের জন্য একটি অনেক বড় অর্জন। আমাদের পেস বোলার এবং স্পিনে একটি ভালো কম্বিনেশন তৈরি হয়েছে, যেটি নিয়ে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারবো'।

এদিকে বিশ্বসেরাদের বিপক্ষে দাপটের সাথে খেলার এ অভিজ্ঞতা আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজে অনুপ্রেরণা হয়ে কাজ করবে বলেও মত সাবেকদের। তবে সেক্ষেত্রে ব্যাটসম্যানদের বড় ইনিংস খেলার মানসিকতা তৈরি করার তাগিদ তাদের কণ্ঠে।

এ ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে ওয়ানডের পাশাপাশি দ্রুতই টেস্টেও বাংলাদেশ শক্তিশালী ক্রিকেট দল হিসেবে পরিণত হবে বলেও প্রত্যাশা করেন সাবেকরা।