SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon আন্তর্জাতিক সময়

আপডেট- ২৮-০১-২০২১ ২০:০৮:৫২

নভেম্বরে ব্রিটেনের জলবায়ু সম্মেলন শেষ সুযোগ: কেরি

3333

এ বছরের নভেম্বরে ব্রিটেনে হতে যাওয়া জলবায়ু সম্মেলন, পৃথিবীর ওপর বৈশ্বিক উষ্ণতা বাড়ার ক্ষতিকর প্রভাব ঠেকানোর শেষ সুযোগ বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরি। চীনের সঙ্গে বিবদমান ইস্যু দেশটির সঙ্গে জলবায়ু নিয়ে একসঙ্গে কাজ করার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াবেনা বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র জলবায়ু নিয়ে চীনের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েচেন সদ্য নিযুক্ত মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন।

প্যারিস জলবায়ু চুক্তি সইয়ে অন্যতম ভূমিকা রেখেছিলেন সাবেক ওবামা প্রশাসনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি। তার সেই অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এবং দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতার আলোকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তিনি। দায়িত্ব নিয়েই এরইমধ্যে জলবায়ু নিয়ে কাজও শুরু করে দিয়েছেন সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সম্প্রতি, বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কেরি বলেন, এ বছর স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে অনুষ্ঠেয় জলবায়ু সম্মেলন, পৃথিবীকে বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির হাত থেকে বাঁচানোর সবশেষ সুযোগ। ট্রাম্প প্রশাসনের আমলে যুক্তরাষ্ট্র জলবায়ু ইস্যু থেকে পুরোপুরি ছিটকে পড়েছিলো বলেও জানান তিনি।

‘আমার মনে হয় জলবায়ু ইস্যুতে আবারও এক ছাতার নিয়ে আসার বড় সুযোগ এটি। শুধু তাই নয়, আমি মনে করি, সবশেষ সুযোগ এটি। তিন বছর আগে, আমরা বলেছিলাম পৃথিবীকে বাঁচাতে আমাদের হাতে ১২ বছর রয়েছে, ট্রাম্প প্রশাসন এই ১২ বছরের মধ্যে তিনটি বছর নষ্ট করেছেন, অতএব প্রকৃত অর্থে আমাদের হাতে আছে মাত্র নয় বছর।’

দ্বিপক্ষীয় নানা ইস্যুতে চীনের সঙ্গে বিরোধ থাকলেও, জলবায়ু ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র দেশটির সঙ্গে একহয়ে কাজ করতে চায় বলে জানিয়েছেন নব নিযুক্ত মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন।

‘চীনের সঙ্গে বেশকিছু ইস্যুতে যেমন আমাদের মতবিরোধ রয়েছে তেমনি মতৈক্যও রয়েছে। যেসব ইস্যুতে দুইদেশের মধ্যে মতৈক্য রয়েছে সেগুলো নিয়ে কাজ করার যথেষ্ট সুযোগ আছে। আমার মনে বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধিরোধে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার বিষয়ে তারাও আমাদের সঙ্গে একমত। বিষয়টি নিয়ে অবশ্যই আমরা একসঙ্গে কাজ করতে চাই।’

হোয়াইট হাউজের জাতীয় জলবায়ু উপদেষ্টা জিনা ম্যাকার্থি বলেছেন, ট্রাম্প প্রশাসন গেল চার বছর ধরে পরিবেশের ওপর যে অত্যাচার চালিয়েছেন, জলবায়ু চুক্তিতে ফিরে আসার মধ্য দিয়ে তা শোধরানোর কাজ শুরু হয়ে গেছে। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধিরোধে সবার আগে নিজ নিজ জায়গা থেকে কাজ করতে হবে বলেও জানান তিনি।