SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon আন্তর্জাতিক সময়

আপডেট- ২৮-০১-২০২১ ১৫:১৬:৩৯

কিশোরীকে ধর্ষণের পর ধর্মান্তকরণের চাপ!

rape-125024

ভারতের উত্তরপ্রদেশের বালিয়ায় এক কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক তরুণের বিরুদ্ধে। এরপর তার বাবা ধর্ষিতার পরিবারকে ধর্মান্তকরণের জন্য চাপ দেন বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত সেই বাবা এবং ছেলেকে গ্রেফতার করেছে যোগী রাজ্যের পুলিশ।

পুলিশের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৪ বছরের ওই কিশোরী যখন বাড়িতে একা ছিল, তখন তাকে ধর্ষণ করেন ২১ বছরের ওই তরুণ। একই সঙ্গে ওই ঘটনার ভিডিও করে রাখা হয়। পরে, সেই ভিডিও দেখিয়ে যৌন সম্পর্কের জন্য আবার হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়েটি তার পরিবারকে ঘটনাটি জানায়। নির্যাতিতার বাবা অভিযুক্তের বাবাকে ঘটনার কথা জানিয়ে ভিডিও মুছে দেওয়ার জন্যও অনুরোধ করেছিলেন। কিন্তু তরুণের বাবা মেয়েটির পরিবারকে ধর্মান্তকরণের জন্য চাপ দেন বলে অভিযোগ। বলেন, ধর্মান্তরিত হলে তিনি বা তার ছেলে নির্যাতিতাকে বিয়ে করবেন। 

এর পরই বালিয়া থানায় অভিযোগ করেন নির্যাতিতার বাবা। তার অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারা, পকসো আইন এবং সম্প্রতি যোগী রাজ্যে পাস হওয়া ধর্মান্তকরণ আইনে মামলা দায়ের করে পুলিশ।

বালিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সঞ্জয় কুমার বলেন, ‘১৪ বছরের কিশোরীটি যখন একা ছিল, তখন তাকে ধর্ষণ করে ভিডিও করা হয়। সেই ভিডিও দেখিয়ে পরে আবার শারীরিক সম্পর্ক করতে চায়। কিন্তু বিষয়টি সমাধান করতে চাইলে তরুণের বাবা ধর্মান্তকরণের জন্য চাপ দেয় বলে জানা গেছে। পরে, ২৫ জানুয়ারি কিশোরীটির বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের হয়েছে। যার ভিত্তিতে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে।