SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৮-০১-২০২১ ১৭:০৮:৫৬

বিয়েতে যাওয়ার চারদিন পর নদীতে ভাসল শিক্ষার্থীর মরদেহ

student

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার লক্ষণখোলা এলাকা থেকে নিখোঁজের চারদিন পর সুজন মাহমুদ (২৫) নামে এক কলেজছাত্রের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌ-থানা পুলিশ। 

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে নবীগঞ্জ খেয়াঘাট এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদী থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য সদর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে ওই মরদেহ।

সুজন মাহমুদ বন্দর উপজেলার আবুল হোসেনের ছেলে। তিনি শহরের সরকারি তোলারাম কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। 

নারায়ণগঞ্জ নৌ-থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ছগীর জানান, গত ১৪ জানুয়ারি বন্ধুদের সঙ্গে কোনো এক বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হন সুজন। এরপর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন। পরে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে সুজনের কোনো সন্ধান না পেয়ে ঘটনার পরদিন তার বাবা বন্দর থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেন। 

সোমবার দুপুর দুইটার দিকে শীতলক্ষ্যা নদীতে একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা নৌ-থানা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করলে সুজন মাহমুদের বলে শনাক্ত হয়।

নৌ-থানা পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানায়, লাশে পচন ধরে যাওয়ায় শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন আছে কিনা সেটা বোঝা যাচ্ছে না। এটি হত্যাকান্ড নাকি দুর্ঘটনা, তা ময়নাতদন্তের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে।