SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১৬-০১-২০২১ ২০:০২:৩২

প্রস্তুতি ম্যাচে সাকিব-তামিমের ব্যাটে হাসি

prac

অবশেষে রানের দেখা পেলেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর প্রেসিডেন্টস কাপে খেললেও নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের আগে ১ম প্রস্তুতি ম্যাচেও হাসেনি তার ব্যাট। তবে যথাসময়ে এসে রানের দেখা পেলেন এই অলরাউন্ডার। শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে পেয়েছেন ফিফটির দেখা। 

শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে ফিফটি পেয়েছেন বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল, নাঈম শেখ ও নাজমুল শান্তও।

ম্যাচটি অবশ্য জিতেছে তামিম বাহিনী। মাহমুদউল্লাহ একাদশকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে তামিম একাদশ। 

প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৪৫ ওভারে সাকিব-নাঈমের ফিফটিতে ৭ উইকেটে ২২৩ রান করে রিয়াদ বাহিনী। জবাবে, অধিনায়কের ব্যাটে ভর করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় দল তামিম একাদশ।

সাভারের বিকেএসপিতে সকালে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা খুব একটা ভালো হয়নি রিয়াদ বাহিনীর। বোলিংয়ে আগুন ঝরিয়েছেন মোস্তাফিজ, রুবেল-সাইফ উদ্দিনরা। দলীয় ৪৫ রানে ব্যক্তিগত ২৪ রান করে আউট হন ইয়াসির রাব্বি।

তবে ২য় উইকেটে দারুণ খেলেছেন নাঈম শেখ ও সাকিব আল হাসান। দু'জনেই তুলে নেন ফিফটি। ৫০ রান করে আউট হন নাঈম শেখ। 

দীর্ঘদিন পর রানের দেখা পাওয়া সাকিব আল হাসানের ব্যাট থেকে এসেছে ৫২ রান। ৮২ বলের ইনিংসটি তিনি সাজিয়েছেন ১ চার ও ১ ছয়ের সাহায্যে।

জাতীয় দলের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের সংগ্রহ ২৫ রান। মোসাদ্দেক সৈকতের ব্যাট থেকে আসে ৩১ রান। আগের ম্যাচে ফিফটি করে দলকে জেতানো অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এদিন ব্যাট করতে নামেন নি।

নির্ধারিত ৪৫ ওভারে ২২৩ রানে থামে রিয়াদ একাদশ। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন তামিম একাদশের সাইফউদ্দিন এবং শেখ মেহেদী হাসান। 

২২৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন তামিম ইকবাল এবং লিটন দাস। তাদের ব্যাটিং দৃঢ়তায় জয়ের পথ সুগম হয় তামিম বাহিনীর। উদ্বোধনী জুটিতে তারা এনে দেন ৭৭ রান। 

এরপর লিটন ৪৮ রান করে আউট হলে, তামিমের সঙ্গী হন নাজমুল শান্ত। ঝোড়ো ব্যাট চালিয়ে ফিফটি তুলে নেন শান্ত। ৫১ বলে ৬১ রান করে আউট হন তিনি। 

তবে একপ্রান্তে অবিচল ছিলেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ৮০ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। তবে ততক্ষণে নিশ্চিত হয়ে গেছে দলের জয়। মিঠুন ও সৌম্য মিলে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। ৮ উইকেটের সহজ জয় পায় তামিম বাহিনী।