SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০৪-১২-২০২০ ১৭:১৭:৪৮

ময়মনসিংহে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

killed

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের চর পুবাইলে তাসলিমা নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে তড়িঘড়ি করে লাশ দাফনের চেষ্টা করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। স্বজনরা আসলেও তাদের লাশ দেখতে বাঁধা দেওয়া হয়।

পরে গোসল করাতে নিয়ে গলা ও শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে সন্দেহ হয় স্বজনদের। বিষয়টি আঁচ করতে পেরে লাশ ফেলে পালিয়ে যায় স্বামী ও শ্বশুর। তবে শাশুড়িকে আটক করেছে পুলিশ।

দেড় বছরের শিশু চাঁদনি, বোঝে না বাবার নির্যাতনে মা চলে গেছে পরপারে। দুধের ফিডার নিয়ে খেলাধুলায় ব্যস্ত ছোট্ট শিশুটির কপালে আর জুটবে না মায়ের আদর।

স্ট্রোক করে গৃহবধূ তাসলিমার মৃত্যু হয়েছে; এমন প্রচার দিয়ে শুক্রবার সকালে তড়িঘড়ি করে লাশ দাফনের চেষ্টা করেন স্বামী সোহেল ও তার স্বজনরা। কবর খোঁড়ার কাজও শুরু হয়। কিন্তু লাশ দেখতে বাঁধা দিলে সন্দেহ হয় নিহতের স্বজনদের। পরে জোর করে নিহতের স্বজনরা লাশ দেখে গলাসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহ্ন পান। যৌতুকের দুই লাখ টাকা এনে দেয়ার জন্য তাসলিমাকে স্বামী সোহেল প্রায়ই নির্যাতন করতেন বলে অভিযোগ স্বজনদের। নির্মম এ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি তাদের।

তাসলিমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ জহিরুল ইসলাম মুন্না।

এদিকে হত্যার বিষয়টি ধরা পড়ে গেলে পালিয়ে যায় নিহত গৃহবধূর স্বামী সোহেল ও শ্বশুর অলিম উদ্দিন।