SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০১-১২-২০২০ ২১:০৪:১৩

ম্যারাডোনার মৃত্যুশোকে সাতদিন না খেয়ে, অবশেষে...

maradona

কিংবদন্তি ফুটবলার ম্যারাডোনার মৃত্যুতে নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ভাত খাওয়া বন্ধ রেখে সাতদিনের শোক পালনকারী সেই ভক্ত রুহুল আমিন সরকার বাবুর শোক ভাঙাল উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা।

মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) দুপুরে বিহারকোল বাজারে তার মুখে খাবার তুলে দিয়ে ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার তার এ শোক কর্মসূচির ইতি টানালেন। 

এদিকে শোক পালনের শেষদিনে রুহুল আমিন সরকার বাবু ম্যারাডোনার আত্মার শান্তি কামনায় ভিক্ষুকদের মাঝে খাবার বিতরণ এবং স্থানীয় ক্রীড়ামোদিদের ভোজনের আয়োজন করেন। ভোজনে স্থানীয় গণমাণ্য ব্যক্তিবর্গ অংশ নেন। 

এসময় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার বলেন, ফুটবল তারকা ম্যারাডোনার মৃত্যুতে সাতদিন থেকে তিনি ভাত, মাছ ও মাংস খাওয়া বন্ধ রেখে শোক পালন করছেন এবং এ সময় শুধুমাত্র শুকনা খাবার খেয়ে জীবন ধারণ করছেন। এ খবর পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে তিনি তার কাছে ছুটে আসেন এবং নিজের হাতে ভক্ত বাবুর মুখে খাবার তুলে তার শোক কর্মসূচি সমাপ্তি টানেন। 

প্রসঙ্গত, ১৯৮৬ সালে ফুটবল বিশ্বকাপ খেলা দেখে রুহুল আমিন সরকার বাবু ম্যারাডোনার ভক্ত হন। গত বুধবার তার প্রিয় ফুটবলার ম্যারাডোনার মৃত্যুতে ভাত, মাছ ও মাংস খাওয়া বন্ধ রেখে সেদিন থেকে ৭ দিনের শোক পালন করেন। এ সময়ে তিনি কালো ব্যাজ ধারণ, তার মুদির দোকানে শোক পালনের ব্যানার, কালো পতাকা এবং আর্জেন্টিনার পাতাকা উত্তোলন করেন। একই সাথে সবার ওপরে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকাও উত্তোলন করে রাখেন। এছাড়াও প্রত্যেক বিশ্বকাপের সময় দোকান থেকে তার বাড়ি পর্যন্ত এক কিলোমিটার আর্জেন্টিনার পতাকা টানানো, প্রজেক্টরের মাধ্যমে খেলা দেখার ব্যবস্থা করা ছাড়াও আর্জেন্টিনার ম্যাচের দিনে তিনি দর্শকদের জন্য বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করতেন।