SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০১-১২-২০২০ ১৮:৫৯:১৬

টেকনাফে পৌঁছাল সাইক্লিং এক্সপিডিশন দল

army

মুজিব জন্মশতবর্ষ উদযাপনে সেনাবাহিনীর ১০০ জন সাইক্লিস্টদের অংশগ্রহণে সাইক্লিং এক্সপিডিশন দলটি দীর্ঘ ২৩ দিনে ১০১০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে টেকনাফে পৌঁছেছে।

মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) বিকেল পৌনে ৩টায় কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের জিরো পয়েন্টে গিয়ে পৌঁছায় সাইক্লিস্ট দলটি।

এসময় সেখানে উপস্থিত সেনাবাহিনীর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও সেনা সদস্যরা তাদের অভিনন্দন জানান। সাইক্লিং এক্সপিডিশনে অংশগ্রহণকারীরাও এসময় কর্মসূচি সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারায় হই-হুল্লোড় করে আনন্দ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

পরে সাবরাং জিরো পয়েন্টে আয়োজিত মুজিব জন্মশতবর্ষের সাইক্লিং এক্সপিডিশনের ফ্ল্যাগ-ইন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সেনাবাহিনীর রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের ১০ আর্টিলারি বিগ্রেডের কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওমর সাদিক।

এসময় সাইক্লিং এক্সপিডিশনে অংশগ্রহণকারি সৈনিক রিনা এবং নেতৃত্বদানকারী মেজর আব্দুল্লাহ আবু আসিফ তাদের অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওমর সাদিক জানান, বাংলাদেশের স্থপতি ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপন এবং স্মরণীয় করে রাখতে সেনাবাহিনীর বছরব্যাপী নানা কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ সাইক্লিং এক্সপিডিশনটির আয়োজন করা হয়েছে। দীর্ঘপথ পাড়ি দেয়ার সময় এতে অংশগ্রহণকারীরা সেনা সদস্য ও সাধারণ মানুষের মাঝে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন। আগামীতেও এ চেতনাকে ধারণ করে দেশ গঠনের আহবান জানানো হয়েছে।

ফ্ল্যাগ-ইন অনুষ্ঠানে সাইক্লিং এক্সপিডিশনে নেতৃত্বদানকারী মেজর আব্দুল্লাহ আবু আসিফসহ ৩ সেনা সদস্য প্রধান অতিথি বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওমর সাদিকের হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দেন। এরপর কর্মসূচির সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

গত ৮ নভেম্বর দেশের সর্ব-উত্তরের পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা সীমান্তের জিরো পয়েন্ট থেকে সাইক্লিং এক্সপিডিশনে যাত্রা করে সেনাবাহিনীর ১০০ সদস্যের একটি সাইক্লিস্ট দল।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, মূলত বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষকে স্মরণ করে সাইক্লিং এক্সপিডিশনে ১০০ সেনা সাইক্লিস্ট অংশ নিয়েছে। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধ-৭১ স্মরণে এতে প্রতিদিনই ৭১ সেনা সদস্য সাইক্লিং করেছেন।

দলটিতে বিভিন্ন পদবির ১৬ জন অফিসার এবং ৮৪ জন সৈনিক। এদের মোট ১১ জন নারী সেনা সদস্য ছিলেন। তবে তার মধ্যে ৩ জন যাত্রার দিন থেকে শেষদিন পর্যন্ত সাইক্লিংয়ে অংশ নিয়েছেন।

আয়োজকরা আরো জানান, তেঁতুলিয়া থেকে দীর্ঘ ১ হাজার ১০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে সাইক্লিস্ট দলটি যাত্রাপথে মূল প্রধান সড়ক ও মহাসড়কগুলো ব্যবহার করেছে। এতে দলটি সেনাবাহিনীর ৮টি ডিভিশন এবং বেশ কয়েকটি বেসামরিক স্থানে যাত্রা বিরতি করে।

দলটির যাত্রাপথে বিরতি নেয়া স্থানগুলোতে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেওয়ার পাশাপাশি আয়োজিত অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার গুরুত্ব সম্পর্কে তুলে ধরে। এছাড়া যাত্রাপথে সেনানিবাস সহ যেসব স্থানে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য, ম্যুরাল ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভ পেয়েছে সেখানেই ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন তারা।