SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০৮-০৪-২০২০ ২২:৩২:২৩

নাটোরে করোনা চিকিৎসায় ৭০ শয্যার অস্থায়ী হাসপাতাল প্রস্তুত

image-99511-1576511952

নাটোরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য নতুন করে ৭০ শয্যার অস্থায়ী হাসপাতাল প্রস্তুত করছে জেলা প্রশাসন ও স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ। বুধবার (৮ এপ্রিল) দুপুর থেকে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে শহরতলীর একডালা এলাকায় পরিত্যক্ত ভবঘুরে আশ্রয়ণ কেন্দ্রের এই অস্থায়ী হাসপাতালে শয্যাগুলো বসানো হয়।
 
নাটোর সদর উপজেলার তেবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক জানান, করোনার প্রভাব শুরু হওয়ার জেলা প্রশাসন তার ইউনিয়নের এই পরিত্যক্ত আশ্রয়ণ কেন্দ্রে করোনা রোগীদের জন্য অস্থায়ী হাসপাতাল করার উদ্যোগ নেয়। মার্চে মাঝামাঝি থেকে আশ্রয়ণ কেন্দ্রটি সংস্কার শুরু হয়। আর বুধবার বেড স্থাপন করা হয়।

নাটোরের সিভিল সার্জন ডা. মিজানুর রহমান জানান, অস্থায়ী হাসপাতালটিতে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত তিন স্তরের রোগীদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা রয়েছে। প্রথম ধাপের সাধারণ করোনা রোগীদের সাধারণ ওয়ার্ড, দ্বিতীয় ধাপের গুরুতর করোনা রোগীদের জন্য আলাদা কেবিন ও তৃতীয় ধাপের জন্য অধিক গুরুতর রোগীদের আলাদা কেবিন থাকবে। তিনস্তরের রোগীদের জন্য আলাদা আলাদা ইউনিট হবে। 

এছাড়া চিকিৎসক ও নার্সদের থাকার আলাদা ব্যবস্থা থাকবে। রোগীসহ এই অস্থায়ী হাসপাতালের সকলের খাবার ব্যবস্থা হবে সরকার থেকে।

ডা. মিজানুর রহমান বলেন, আশ্রয়ণ কেন্দ্রের অস্থায়ী হাসপাতাল ছাড়াও করোনা রোগীদের জন্য আমজাদ খান মোমেরিয়াল হাসাপতালে ২০ শয্যা এবং জেলার ৫টি উপজেলায় সরকারি হাসপাতালে ৩৫টি শয্যা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

নাটোর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, আশ্রয়ণ কেন্দ্রে ১৪০ শয্যার হাসপাতাল স্থাপনের সক্ষম হলেও প্রথম পর্যায়ে ৭০টি শয্যা বসানো  হচ্ছে। এছাড়া অস্থায়ী এই হাসপাতালের সকল সরঞ্জাম জেলা  প্রশাসন থেকে ব্যবস্থা করা হবে।