SomoyNews.TV

ধর্ম

আপডেট- ০২-০৪-২০২০ ১৫:০৫:৩৬

ভারত থেকে ফিরেছেন সাদপন্থী ১১ জন, দুজন কাকরাইলে

tableagw-jamat

ভারত থেকে আসা তাবলিগ জামাতের সাদপন্থী ১১ জন সদস্যের মধ্যে দুজন কাকরাইলে ও বাকিরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তত্ত্বাবধানে আছেন। তাদের সবাইকে বিমানবন্দরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে বলে দাবি সংশ্লিষ্টদের।

পুলিশ জানায়, সারাদেশে ছড়িয়ে পড়া বিদেশফেরত তাবলিগ সদস্যদের তথ্য সংগ্রহ ও কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হচ্ছে।

রাজধানীর কাকরাইল মসজিদ থেকে গত ফেব্রুয়ারিতে ১১ জন বাংলাদেশি নাগরিক তাবলিগে ভারতে যান। বিভিন্ন মাধ্যমে খবর ছড়িয়ে পড়ে, নিজাম উদ্দিন মারকাজে অবস্থান নেয়া অনেকেই করোনায় আক্রান্ত। মাওলানা সাদপন্থীদের দাবি, তারা লকডাউনের আগেই ফিরে আসেন। এর আগে থেকেই চার মাস সময়ের জন্য আরও ৩৩ জন সদস্য অবস্থান করছিলেন দিল্লির নিজাম উদ্দিন মারকাজে। সাংগঠনিক কাজ শেষ না হওয়ায় দেশে ফেরেননি তারা।

কাকরাইলে থাকা একজন জানান, যারা নিজামউদ্দিন মারকাজ থেকে এসে কোয়ারেন্টাইনে গেছেন; সবাই সুস্থ হয়েগেছেন। আমাদের মধ্যে কেউই আক্রান্ত হননি।

এদিকে ভারত থেকে দেশে ফেরা একজন দাবি করেন, সপরিবারে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তারা। স্থানীয়রাও জানান, বিদেশ ফেরতদের ব্যাপারে তথ্য দিতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

যারা মুসল্লি মসজিদে আসে, তাদের মধ্যে তথ্য পাই কে তাবলিগ জামাতে গেছে, কে আসছে। একই সঙ্গে জামাতে কাজ চলছে।

ভারত থেকে ফিরে আসা তাবলিগের এক সদস্য জানান, আমরা বাসায় আছি, কোথাও যাচ্ছি না। এখানে নামাজ কালাম পড়তেছি। আগামী ৬ এপ্রিল পর্যন্ত আমাদের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

কাকরাইল মসজিদে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক বিদেশি নাগরিক রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

পুলিশের এক সদস্য জানান, এ মুহূর্তে কাকরাইল মসজিদে ১৫৭ জন বিদেশি রয়েছেন। এছাড়াও সারা দেশে ৯৭ জন রয়েছেন।

বাংলাদেশে থাকা তাবলিগের দুই পক্ষেরই মূল অবস্থান কাকরাইলে। আপাতত সাদপন্থীদের তালিকা হলেও অন্য পক্ষেরও বিদেশ ভ্রমণকারীদের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহের কথা জানায় পুলিশ।