SomoyNews.TV

স্বাস্থ্য

আপডেট- ৩১-০৩-২০২০ ১৭:৫৫:২৫

কাল থেকে বিএসএমএমইউতে করোনা পরীক্ষা

bsmmu

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) শাহবাগস্থ বাংলাদেশ বেতার ভবনের দ্বিতীয় তলায় স্থাপিত করোনা ভাইরাস ল্যাবরেটরিতে আগামীকাল বুধবার (১ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে শনাক্তকরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা কার্যক্রম।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুরে ডা. মিল্টন হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া এ কথা জানান।

এ সময় বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন কর্তৃক পিপিই, অ্যান্টিসেপটিক হ্যান্ডরাব সল্যুশনসহ করোনা ভাইরাস সংশ্লিষ্ট সুরক্ষা সামগ্রী তার কাছে প্রদান করা হয়।

উপাচার্য আরও জানান, সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত রোগীরা এ পরীক্ষাটি করাতে পারবেন। 

তিনি বলেন, বিশ্ব আজ একটি দুর্যোগের মুখোমুখি। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের সব নাগরিকসহ সমগ্র বিশ্ববাসীকে লড়াই করতে হচ্ছে। চিকিৎসক, সাংবাদিক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা আজ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাস বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও করণীয় নির্ধারণে ইতোমধ্যে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

গত ২ সপ্তাহ ধরে বেতার ভবনে ফিভার ক্লিনিকে জ্বর সর্দি-কাশির রোগীদের পৃথকভাবে চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। বহির্বিভাগের চিকিৎসাসেবা চালু রয়েছে। জরুরি সেবা চালু রয়েছে। রোগীদের সুবিধার্থে হেল্প লাইন চালু করা হয়েছে। রোগীদের পাশে রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বলে জানান তিনি।

এ সময় ভাইরোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সাইফ উল্লাহ মুন্সী আগামীকাল বুধবার থেকে করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণের টেস্ট কার্যক্রম শুরু হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী অর্থাৎ বাংলাদেশ বেতার ভবনের নিচতলায় স্থাপিত ফিভার ক্লিনিকের কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণের পর রোগীরা এটি শনাক্তকরণের পরীক্ষা বা টেস্ট করাতে পারবেন।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিশেনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও চিকিৎসা, করণীয় নির্ধারণ ও জনসচেতনতা সৃষ্টিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মেনে কাজ করা হচ্ছে।

এতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন ইতোমধ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বলেও জানান তিনি। 

সংগঠনের পক্ষ থেকেও করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণসহ নানা কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে এবং তা অব্যাহত থাকবে। করোনা ভাইরাস বিষয়ে সর্বদা নজর রাখছে। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে অবশ্যই  আমাদের জয়ী হতে হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে মঙ্গলবার বাংলাদেশ ডক্টরস ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালের জন্য কিছু হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান করা হয়েছে।

উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)-এর সম্মানিত সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, বিএমএয়ের মহাসচিব ডা. মো. ইহতেশামুল হক চৌধুরী, সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।