SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৬-০৩-২০২০ ২২:২৪:৪৩

অবশেষে টিভি চ্যানেলগুলো মনিটরিংয়ের আদেশ প্রত্যাহার

info-min

দেশে করোনা ভাইরাস নিয়ে অপপ্রচার ও গুজব বন্ধে ৩০টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের সংবাদ মনিটরিংয়ের জন্য জারি করা আদেশ প্রত্যাহার করেছে তথ্যমন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (রাতে) মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নতুন করে আদেশ জারি করা হয়।

মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ মিজান উল আলম সাক্ষরিত ওই আদেশে বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধ সংক্রান্ত প্রচারণা/গুজব মনিটরিং করার জন্য জারিকৃত পত্রে ভুলভ্রান্তি থাকায় তা কর্তৃপক্ষের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে বাতিল করা হলো।

এতে বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে কোভিড-১৯ বিষয়ে কোনো গুজব ও ভুল তথ্য প্রচার করা হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং প্রচার মাধ্যমকে সহায়তা করার জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ে একটি সেল গঠন করা হয়েছ। উক্ত সেলের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

এর আগে গত মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে আদেশ জারি করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার সেটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ পায়।

ওই আদেশে, করোনা ভাইরাস নিয়ে অপপ্রচার ও গুজব বন্ধে ৩০টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের সংবাদ মনিটরিং করার কথা বলা হয়। এ কাজের (তদারকি) জন্য ১৫ জন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়। প্রত্যেক কর্মকর্তা দুটি করে টেলিভিশন চ্যানেল মনিটরিং করার কথা বলা হয়।

আদেশে বলা হয়েছে, দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের কোনো বেসরকারি টিভি চ্যানেলে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে অপপ্রচার কিংবা গুজব প্রচার হচ্ছে বলে চিহ্নিত করলে, তা বন্ধ করার জন্য সঙ্গে সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রচার) মো. মিজান উল আলম বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ও অপপ্রচার বন্ধে বেসরকারি টেলিভিশনগুলোকে মনিটরিং করার জন্য কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত তারা এ কাজ চালিয়ে যাবেন।

করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ও অপপ্রচার বন্ধে অনলাইন ও পত্রিকার মনিটরিংয়ের কাজ তথ্য অধিদফতরের গুজব নিয়ন্ত্রণ সেল করছে বলে জানান তিনি।

আদেশে বলা হয়, গত (২৪ মার্চ) কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) সংক্রমণ প্রতিহতকরণের প্রচার-প্রচারণার সংক্রান্ত কমিটির প্রথম সভার সিদ্ধান্তের আলোকে বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সম্প্রচারিত বিশ্বব্যাপী করোনার সংক্রমণের বিষয়ে অপপ্রচার গুজব প্রচার করা হচ্ছে কি-না তা মনিটরিংয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

তবে তথ্য মন্ত্রণালয়ের কমিটি গঠনের নিন্দা জানিয়ে এটি প্রত্যাহারের দাবি জানান ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টার-বিজেসি। তথ্য মন্ত্রণালয়ের এই মনোভাব পরিত্যাগ করার আহবান জানানো হয় সংগঠনটির পক্ষ থেকে।

প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, করোনা মোকাবেলায় দেশের সম্প্রচার সংবাদিকরা যখন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন। জনগণকে সচেতন করছেন তখন টেলিভিশনে “গুজব” খোঁজার জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ের কমিটি গঠন বিষ্ময়কর; অনভিপ্রেত ও হতাশাজনক।

অথচ বেসরকারি টেলিভিশনগুলো বরাবরই যেকোনো গুজবের বিরুদ্ধে, অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেসব গুজব ছড়ায় তা মোকাবেলা করার দায়িত্ব এই বেসরকারি টেলিভিশনগুলোই শুরু থেকেই নিয়েছে।

অথচ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো তখন ঘুমিয়ে থেকেছে। সম্প্রতি লবণ সংকট গুজব মোকাবেলা তার উদাহরণ উল্লেখ করা।

সম্প্রচার সংবাদকর্মীরা সবসময় বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী এবং দেশের প্রতি দায়বদ্ধ বলে উল্লেখ করা হয়।