SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৫-০৩-২০২০ ১৪:৩৬:২৯

মসজিদে উপস্থিতি সীমিত করার অনুরোধ

mosque

মসজিদ বন্ধ থাকবে না। তবে করোনা সংক্রমণ হতে সুরক্ষা নিশ্চিত না হয়ে মসজিদে যাওয়া থেকে বিরত এবং মসজিদে জুমা ও পাঁচ ওয়াক্তের জামাতে মুসল্লিদের উপস্থিতি সীমিত রাখার আহ্বান জানিয়েছেন বিশিষ্ট আলেম-ওলামারা।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এক সভায় এ আহ্বান জানান আলেম-ওলামারা।

বুধবার (২৫ মার্চ) এ অনুরোধ জানান তারা।

এদিকে জ্বর-কাশি-ঠান্ডা যাদের আছে তাদের মসজিদে না যেতে অনুরোধ করেছেন ধর্মমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এ নির্দেশ মেনে ঘরে নামাজ আদায় করার জন্য বুধবার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

মসজিদে নামাজ পড়া বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়ে সংঘাতের মতো পরিস্থিতি তৈরি করা ঠিক হবে না বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী। সবাইকে সচেতন হতে অনুরোধ করেন মন্ত্রী।

এদিকে দেশে করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোনো রোগী শনাক্ত হননি। তবে পুরোনো একজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স ৬৫ বছর। তিনি একজন পুরুষ। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৫ জনে। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯ জন।

বুধবার (২৫ মার্চ) করোনা ভাইরাস নিয়ে নিয়মিত অনলাইন সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ড. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি বলেন, রাজধানীর টোলারবাগে সীমিত আকারে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হতে পারে বলে মনে করছে আইইডিসিআর।

তিনি আরও জানান, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন আরও ২ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২৭ জন।

এর আগে গত ১৮ মার্চ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় এক বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর দেয় আইইডিসিআর। দেশের মাটিতে এটিই ছিল করোনায় প্রথম মৃত্যু।

এর পর ২১ মার্চ মহাখালীর স্বাস্থ্য অধিদফতরে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে আরেকজনের মৃত্যুর খবর জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

গত ২৩ মার্চ করোনা ভাইরাসে দেশে আরেকজনের মৃত্যু হয় বলে জানায় আইইডিসিআর। ওই দিন বিকেলে অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান আইইডিসিআর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকেলে অনলাইন লাইভ ব্রিফিংয়ে আইইডিসিআরের পক্ষ থেকে পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা চতুর্থ ব্যক্তির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

এদিকে বুধবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত সারাবিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ২২ হাজার ৯১৩ জনে। মৃত্যু হয়েছে ১৮ হাজার ৯০৫ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১ লাখ ৯ হাজার ১৪৩ জন।

এ মুহূর্তে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত অবস্থায় আছেন ২ লাখ ৯৪ হাজার ৮৬৫ জন, যাদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় আছেন ১৩ হাজার ৯৫ জন। বাকি ২ লাখ ৮১ হাজার ৭৭০ জনের অবস্থা কিছুটা ভালো। এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ৮৫ শতাংশ মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মৃত্যু হয়েছে ১৫ শতাংশের।