SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৫-০৩-২০২০ ২০:২৯:৪১

করোনার প্রভাবে দর্শকশূন্য ফুটবল স্টেডিয়াম

02-copy

নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়ামের প্রতিটি খেলায় হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতি থাকলেও করোনা ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে দেশের ফুটবলের সর্বচ্চো লীগ বিপিএল’র বসুন্ধরা কিংস ও চট্টগ্রাম আবাহনী মধ্যকার রোববার (১৫ মার্চ) বিকালের খেলায়। দর্শকশূন্য গ্যালারিতে গোল উৎসবে স্বাগতিক বসুন্ধরা কিংসকে নাটকীয় ভাবে ৩-৪ গোলে হারিয়ে শীর্ষস্থান দখল করে নেয় চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। 

খেলায় প্রথম দিকে দুই দলেই এলোমেলো ভাবে খেলতে থাকে। তবে ৩৭ ও ৪০ মিনিটে দুইটি সহজ সুযোগ মিস করে স্বাগতিক বসুন্ধরা কিংস। ৪২ মিনিটে কিংসের মধ্যমাঠের বিদেশি খেলোয়ার বখতিয়ারকে ডি-বক্সের ভিতর অবৈধ ভাবে বাধা দিলে পেনাল্টি পেয়ে সুযোগ আর হাত ছাড়া করে নাই অস্কার বাহিনী। বসুন্ধরার তাজিকিস্তানের ডিফেন্ডার এন নাজারভের প্যানল্টি শুটে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা। এরপর ৪৭ মিনিটে ডি কলিনড্রেসের ফ্রি-কিক শুটে আর্জেন্টাইন লিজেন্ট এন দেলমন্টের হেডে বল চলে যায় আবাহনীল জালে। এতে প্রথমার্ধ্যই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা। 

বিরতির পর ৫৯ মিনিটে কিংস সেনাপতি ডি কলিনড্রেস আবাহনীর গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে ৩-০ গোলে এগিয়ে নেন। এরপর শুরু হয় নাটকীয়তা। ৬৪ মিনিটে হেডে প্রথম গোল করেন আবাহনীর দলপতি কোট আই ভরির খেলোয়ার কেফি জেন । ৬৭ মিনিটে আবাহনীর ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড এন ব্রিজোলারাকে ডি-বক্সের ভিতরে অবৈধভাবে বাধা দিলে প্যানাল্টি শুটে ব্রিজোলারাই শুট করে গোল করেন। এতে ৩-২ গোলে ব্যবধান কমে আসে। ৮৭ মিনিটে ব্রিজোলারা আবারো এক অসাধারণ হেডে গোল করে ৩-৩ গোলে সমতায় নিয়ে আসেন। খেলার অতিরিক্ত পাঁচ মিনিটে গোল করে বসুন্ধরা কিংসকে নিজ ঘরের মাঠে প্রথম হারের অতৃপ্ত স্বাদের সাজা দেয় আবাহনীর নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এম চিনেদু। 

শেষমেষ ৩-৪ গোল ব্যবধানে নাটকীয় জয়ে ছয় খেলায় চার জয় ও এক ড্রয়ে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকলো চট্টগ্রাম আবাহনী। আর ছয় খেলায় তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ছয় নম্বরে থাকলো গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস।

খেলায় দ্বিতীয়ার্ধে পতিপক্ষ বসুন্ধরা আক্রমণ কমিয়ে দিলে আমরা ৪-২-৪ ফরমেটে আক্রমনাত্বক খেলে জয় পাই। 

নীলফামারী জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক আরিফ হোসেন মুন ও বসুন্ধরা কিংসের সাধারন সম্পাদক মিনহাজুল ইসলাম জানান, করোনা ভাইরাজের কারণে নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে দর্শকদের নিরুশাহিত করেছে কতৃপক্ষ। করোনা সংকট কেটে গেলে আবারো দর্শকপূর্ন গ্যালিরিতে অন্যান্য খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে।