SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বিনোদনের সময়

আপডেট- ২৭-০২-২০২০ ১২:৩০:৩৫

সালমানের সঙ্গে ভাইবোনের সম্পর্ক ছিল: শাবনূর

shabnoor

প্রয়াত চিত্রনায়ক সালমান শাহর সঙ্গে ভাইবোনের মতো সম্পর্ক ছিল বলে দাবি করেছেন শাবনূর। সালমান শাহর মৃত্যুর প্রায় দুই যুগ পর পিবিআইয়ের প্রতিবেদনে শাবনূরের নাম উঠে আসার পর সৃষ্ট তর্ক-বিতর্কের মাঝে দেশের একটি ইংরেজি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন তিনি।

সালমানের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে শাবনূর বলেন, হঠাৎ করে কী হলো যে নতুন করে আমাকে জড়ানো হচ্ছে? সালমানের মাও তো আছেন। তিনি মা। এ রকম কিছু হলে তো তিনি আগে জানতেন। তিনি তো বারবার বলছেন যে, আমার সঙ্গে সালমানের একটা অন্যরকম ভাইবোন টাইপের সম্পর্ক ছিল।

তিনি আরও বলেন, সালমান আমার কো-আর্টিস্ট ছিল, ভাইবোনের মতো সম্পর্ক ছিল। সামিরাও জানতো।

গত সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআইর) প্রধান বনজ কুমার মজুমদার সালমান শাহর হত্যা রহস্যের বিস্তারিত জানান। তিনি জানান, পিবিআইয়ের তদন্তে পাওয়া গেছে সালমান শাহকে হত্যা করা হয়নি, তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

সালমান শাহর আত্মহত্যার কারণ হিসেবে ৫টি বিষয়কে চিহ্নিত করে পিবিআই। কারণগুলো হলো- 

১. শাবনূরের সঙ্গে অতিরিক্ত অন্তরঙ্গতা

২. স্ত্রী সামিরার সঙ্গে কলহ

৩. মাত্রাতিরিক্ত আবেগ প্রবণতা 

৪. একাধিকবার আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা 

৫. মায়ের প্রতি অসীম ভালোবাসার কারণে সম্পর্কে জটিলতা এবং সন্তান না থাকায় হতাশা।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর ইস্কাটন রোডে নিজের বাসা থেকে চিত্রনায়ক চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার (ইমন) ওরফে সালমান শাহর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওই সময় এ বিষয়ে অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন তার বাবা কমরউদ্দিন আহমদ চৌধুরী। পরে ১৯৯৭ সালের ২৪ জুলাই ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে মামলাটিকে হত্যা মামলায় রূপান্তরিত করার আবেদন জানান তিনি।

প্রায় ১৮ বছর আগের এই মৃত্যুর ঘটনা হত্যা না আত্মহত্যা তা নির্ধারণে গত বছরের জানুয়ারি মাসে মামলাটি আবারও আদালতে ওঠে। তখন মামলাটি তদন্তে পিবিআইকে দায়িত্ব দেয় আদালত।