SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ২৭-০২-২০২০ ০৫:৩৪:০১

ইসলামিক ঐতিহ্যের আদলে সাজবে ঢাকা

oic-plan1

এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে ওআইসি ইয়্যুথ ক্যাপিটালের জন্য সাজছে ঢাকা। ওআইসির ৫৭টি দেশের আগমনকে সামনে রেখে ইসলামিক ঐতিহ্যের আদলে গড়তে, নানা উদ্যোগ নিয়েছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে বসছে গেট। ব্যানার-ফেস্টুন আর ফ্ল্যাশ মবে দেয়া হবে ইভেন্টের আগমনী বার্তা। ১২ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন মেগা ইভেন্টের।

টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া বাংলার বাঁকে বাঁকে মুজিব বর্ষের কাউন্টডাউন। ১২ এপ্রিল ওআইসি ইয়্যুথ ক্যাপিটাল অনুষ্ঠানের জন্য সাজবে ৪০০ বছরের পুরোনো ঢাকা। আসবে ৫৭টি দেশ। বিগ ইভেন্টে বাজেটও বিগ। প্রায় ৩ কোটি টাকা।

চলতি বছর ১৬ জানুয়ারি কাতারের দোহায় এক আড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ওআইসির চাবি গ্রহণ করেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী। এপ্রিলের শুরুতে সেই চাবির বৃহদাকায় ভাস্কর্য দিয়ে মেগা ইভেন্টের সাজ-সজ্জার শুরু। ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলোতে বসবে এমনই গেট। রাজপথে গড়া হবে ইসলামী ঐতিহ্যের আদলে মনুমেন্ট। ব্যানার-ফেস্টুন আর ফ্লাশ মবে অনুষ্ঠানের আগাম বার্তা দেয়ে হবে নগরবাসীকে। এসব শেষে, ১২ এপ্রিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন মেগা এ ইভেন্টের।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব আখতার হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে সময় দিয়েছে ১২ এপ্রিল। এদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। উদ্বোধন এবং সমাপনী ছাড়া ৮টি সেশনের আয়োজন করো হয়েছে। উদ্বোধনের আগে বিভিন্নভাবে ঢাকাকে সাজানো হবে।

শুধু তাই নয়, ইভেন্টকে সামনে রেখে ডাক টিকিট ও পোস্ট কার্ড ছাপবে মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে বানানো হয়েছে ওয়েবসাইট। মোবাইল অ্যাপের কাজও প্রায় শেষ।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার প্রসারের বিষয়টি তো থাকছেই। আর, এই অনুষ্ঠানে থাকবেন ওআইসির ৫৭টি দেশের ক্রীড়া মন্ত্রীসহ বড় বড় কর্তারা।

আখতার হোসেন বলেন, এ অনুষ্ঠানে ওআইসি ভুক্ত দেশের মন্ত্রীরা এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিরা থাকবে। যুব ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আমরা প্রায় ১শ’ টি প্রোগ্রামের ডিজাইন করেছি। এসবই মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য আয়োজন।  

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হবে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠান। বড় কোনো তারকাকে আনার কথাও আছে। এরপর, কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাবেন অতিথিরা। সেখানে বিচ কনসার্টে প্রীতি ম্যাচের আয়োজনের পরিকল্পনা আছে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের।

সচিব বলেন, ওআইসি’র সম্মানিত অতিথিরা এ সময় রোহিঙ্গা ক্যাম্প ভিজিট করবে। সেখানে একটা সি বিচ কনসার্টের বিষয় ভাবছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

অনুষ্ঠান সফল করতে প্রতি সপ্তাহেই বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বসছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।