SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৬-০২-২০২০ ১৭:৫০:৫৩

খালেদা উন্নত চিকিৎসা কেন নিচ্ছেন না, জবাব লিখছেন আইনজীবীরা

khaleda-report

বেগম জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট উচ্চ আদালতে দাখিল করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। রিপোর্টে কি আছে জানার আগেই, কেন বেগম জিয়া আর্থ্রাইটিসের উন্নত চিকিৎসার জন্য সম্মতি দেননি, তার কারণ জানিয়ে লিখিত ব্যাখ্যা তৈরি করেছেন তার আইনজীবীরা। আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) জামিন শুনানিতে আদালতকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়া হবে। রিপোর্ট সন্তোষজনক না হলে নেত্রীকে আদালতে হাজিরের আবেদনের কথাও ভাবছেন তারা। আর দুদক আইনজীবী বলছেন, বেগম জিয়াকে জামিন দেয়ার আইনি কোনো ভিত্তি নেই।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বেগম খালেদা জিয়া আর্থ্রারাইটিসের উন্নত চিকিৎসা নিচ্ছেন কিনা সে বিষয়ে রিপোর্ট চেয়েছিলেন উচ্চ আদালত।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে হাইকোর্টে মেডিকেল রিপোর্ট দেয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সিলগালা করা রিপোর্টটি এরই মধ্যে কোর্টে দাখিল করা হয়েছে।

এদিকে, বিএনপি চেয়ারপার্সন উন্নত চিকিৎসা কেন নিচ্ছেন না, তার ব্যাখ্যা দিয়ে লিখিত জবাব প্রস্তুত করেছেন তার আইনজীবীরা। যা বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার জামিন শুনানিতে আদালতকে অবহিত করা হবে। 

আইনজীবী জয়নুল আবেদীন জানান, স্বাস্থ্য প্রতিবেদন সন্তোষজনক না হলে বেগম জিয়াকে সশরীরে আদালতে হাজিরের আবেদন করার কথাও ভাবছেন তারা।

তিনি বলেন, পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট যদি না পাঠানো হয়, তাহলে আমরা জানি না আদালত সেটি কিভাবে গ্রহণ করবে। তারপরও যদি দেখি সরকারের কোনো প্রভাব রয়েছে, সেক্ষেত্রে আদালতকে অনুরোধ করবো যে, তাকে একটু হাজির করে দেখেন।

তবে, দুদক আইনজীবী অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান বলছেন, বেগম জিয়াকে জামিন দেয়ার উপযুক্ত কোনো কারণ নেই।

তিনি বলেন, আদালতে তারা যৌক্তিক কারণ দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন। এ মামলায় যে কোনো সাক্ষ্য নাই, এই মর্মে তারা সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে দেখাতে পারেনি। 

আর আইনি লড়াইয়ে ব্যর্থ হয়ে সরকারের ওপর দোষ চাপানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

তিনি বলেন, তথ্য-উপাত্ত দিয়ে আদালতের সামনে প্রমাণ করতে হবে তিনি জামিন পাওয়ার অধিকারী। সেটা করতে ব্যর্থ হচ্ছেন তারা, আর দোষ চাপানো হচ্ছে অ্যাটর্নি জেনারেল অফিসের উপর। এটা একটা হাস্যকর বিষয়। বিএনপি নেতারা যারা আমাদের বিরুদ্ধে এত কথাবার্তা বলছেন তাদের তো উচিৎ নেত্রীকে রাজি করানো, যেন তিনি চিকিৎসা নেন।

সব মিলিয়ে বৃহস্পতিবার বেগম জিয়ার জামিন শুনানিকে ঘিরে আদালতের দিকে দৃষ্টি থাকবে সবার।