SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৫-০২-২০২০ ১৮:১৯:৫৩

থানা হেফাজতে নারীর মৃত্যু

mohammadpu-thana

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা হেফাজতে অসুস্থ হয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাতে থানা হাজতে অসুস্থ হয়ে পড়লে জ্যোৎস্না ওরফে লিমা (৩৫) নামের ওই নারীকে প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নেয়া হয়। তবে হাসপাতাল থেকে ওই নারীকে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পরে লিমার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ওয়াহেদুল ইসলাম জানান, সোমবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে মোহাম্মদপুর থানা হেফাজতে হঠাৎ ওই নারী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ভোর পৌনে ৪টায় চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, সোমবার মোহাম্মদপুরের নূরজাহান রোডে ডি-টাইপ কলোনির একটি ফ্ল্যাটে পতিতাবৃত্তি হচ্ছে- ৯৯৯ নম্বরে এমন অভিযোগ পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সেলিনা (৪৫), জ্যোৎস্না (৩৫), শাহিনুর (২২) নামের ৩ নারী ও সোহাগ নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে।

সরকারি বরাদ্দপ্রাপ্ত কলোনির বাসাটি সেলিনার জানিয়ে তিনি বলেন, তার স্বামী অনেক আগেই মারা গেছেন। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। তার স্বামী কলেজ অধ্যক্ষ ছিলেন। পুলিশ জানায়, আটক সেলিনা নিজেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স করা বলে দাবি করেন। এর আগে তার বিরুদ্ধে মানবপাচারের দুইটি মামলা রয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

এদিকে মোহাম্মদপুর ডি-টাইপ কলোনির সেলিনার ফ্ল্যাটের আশেপাশের বাসিন্দারা জানান সোমবার বেলা ১১টার দিকে পুলিশ আসে। পরে পুলিশ ফ্ল্যাটের বাইরে থেকে কোন একজনকে ফোন দিলে সেলিনা ফ্ল্যাটের ভেতর থেকে দুই নারী ও একজন পুরুষের সাথে বের হয়ে আসেন। পরে তাদের সেখান থেকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
 
এসময় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, সেলিনার ফ্ল্যাটে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিনিয়ত অচেনা পুরুষ মহিলার অবারিত যাতায়াত ছিল এবং তারা অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকতো। এবিষয়ে কলোনির বাসিন্দারা প্রতিবাদ জানালে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে তাদের নানা ভয়ভীতি দেখানো হতো বলেও দাবি করেন তারা।