SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১৯-০২-২০২০ ১৯:৪৭:৫১

বিশ্বকাপে অবশ্যই সাকিব অধিনায়ক, তবে...

shakib

২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দেবেন সাকিব আল হাসান। তবে ফেরার পর তার ফিটনেস এবং ফর্ম ঠিক থাকতে হবে।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের বলেন, সাকিব আবার ফিরে আসে, আগের ফর্মে থাকে, যে সাকিব ছিল তাই থাকে, তাহলে অবশ্যই সেই প্রথম পছন্দ। ও তো অধিনায়ক ছিলই।

এক বছরের লম্বা নিষেধাজ্ঞা পার করছেন দেশের সেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। এদিকে তাকে ছাড়া দলটাও ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে। অন্তত সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স সেটাই বলছে। অপরদিকে জাতীয় দলের আরেক সিনিয়র ক্রিকেটার মাশরাফী বিন মুর্তজা ক্যারিয়ারের শেষ সময়ে এসে দাঁড়িয়েছেন। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়ে দিয়েছেন, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফী দলকে নেতৃত্ব দিলেও এক মাসের মধ্যেই নতুন অধিনায়কের নাম ঘোষণা করা হবে। আর মাশরাফী অবসর না নিলে তাকে দলে থাকতে হবে ফিটনেস টেস্ট এবং পরফরম্যান্স প্রমাণ করে। অর্থাৎ, আর দলের অটো চয়েস থাকছেন না মাশরাফী। 

মাশরাফির পর দলকে নেতৃত্ব দেবেন কে? এমন প্রশ্ন এখন ক্রিকেট প্রেমীদের মনে।

দলের নেতৃত্ব নিয়ে বিসিবিও যে চিন্তায় আছে সেটা বুঝায় যাচ্ছে। আসলে ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে দল গোছাতে চায় বোর্ড। কিন্তু এক মাসের মধ্যেই তো আর সাকিব আল হাসানকে পাওয়া যাচ্ছে না। আর তাই নেতৃত্বে আসতে পারে নতুন কেউ। তবে যেই আসুন না কেনো তিনি হতে পারেন অন্তর্বর্তীকালীন অধিনায়ক। কারণ বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবেন সাকিব আল হাসানই। বিসিবি সভাপতি এমনই জানালেন।

তিনি জানান, ২০২৩ সালে অনুষ্ঠিতব্য আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপে সাকিবের নেতৃত্বেই খেলবে বাংলাদেশ। সাকিব নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর পুরনো ছন্দে থাকবেন বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

পাপন বলেন, পরবর্তী ওয়ানডে বিশ্বকাপে অবশ্যই সাকিব অধিনায়ক। ও যদি আবার ফিরে আসে, আগের ফর্মে থাকে, যে সাকিব ছিল তাই থাকে, তাহলে অবশ্যই সেই প্রথম পছন্দ। ও তো অধিনায়ক ছিলই।

তবে এ বছরের অক্টোবরে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দেওয়া হবে না সাকিবের। কারণ বিশ্বকাপ চলাকালে শেষ হবে তার নিষেধাজ্ঞা।

পাপন বলেন, সাকিব কবে ফিরবে সেটা হল কথা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়িং রাউন্ডের মধ্যে তো সে আসতে পারছে না। মূল পর্বে গেলেও একটা ম্যাচে সে থাকবে না। তিনটা ম্যাচে সে থাকতে পারছে না। ঐ তিন ম্যাচে তো আমাদের একজন অধিনায়ক থাকবে। ম্যাচ প্র্যাকটিস ছাড়া সাকিব হঠাৎ এসে ঢুকতে পারবে কি না- এটাও তো ওর সাথে আলোচনা করে নিতে হবে।