SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ২৯-০১-২০২০ ২৩:০৮:১০

নরসিংদীতে মানবপাচারকারী চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার

pacharkari

মালয়েশিয়ায় অপহরণের সঙ্গে জড়িত বাংলাদেশে অবস্থানরত মানবপাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গ্রেফতারের মাধ্যমে মালয়শিয়ায় অপহৃত রাসেল মিয়াকে (৩০) মুক্ত করা হয়। মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) নরসিংদী শহরের আরশীনগর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- আদিল মিয়া (৩৮) এবং হাবিবুর রহমান হবি (৩৮)।

মালয়েশিয়ায় অপহৃত ভিকটিম রাসেল মিয়ার মায়ের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা শাখার উপপরিদর্শক মোস্তাক আহমেদের নেতৃত্বে একটি টিম এ অভিযান পরিচালনা করে।

গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্রের সঙ্গে মিলে বিদেশে মানবপাচার করে আসছে। গত ২৩ জানুয়ারি রাসেল মিয়াকে প্রলোভন দেখিয়ে তার মায়ের অজান্তে মালয়েশিয়া পাঠায় ওই চক্র। পাচারকারী চক্র কর্তৃক রাসেল মালয়েশিয়া গমন করলে সেখানে (মালয়েশিয়ায়) মানব পাচারকারী চক্রের অপর সদস্যরা রাসেলকে আটকিয়ে রাখে। এদিকে বাংলাদেশে রাসেলের মা-ছেলেকে হন্য হয়ে খুঁজতে থাকা অবস্থায় মালয়েশিয়া হতে তার কাছে ফোন আসে। পাচারকারী চক্র রাসেলকে মালয়েশিয়ায় আটকিয়ে মারপিট করে এবং ভিডিও ধারণ করে তার মাকে দেখিয়ে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

মানবপাচারকারী চক্রের দুই সদস্য আদিল ও হাবিব রাসেলের মায়ের কাছ থেকে ২ লাখ টাকা আদায় করে। মুক্তিপণ নিয়েও পাচারকারী চক্র অপহৃত রাসেলকে মুক্তি না দিয়ে আরো ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

নিরুপায় রাসেল এর মা এ ঘটনা জানিয়ে গত ২৮ জানুয়ারি নরসিংদীর পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। 

পুলিশ সুপার অভিযোগটি তদন্তের জন্য তাৎক্ষণিকভাবে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) শাখাকে দায়িত্ব দেন এবং দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। পরে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে মানবপাচারকারী চক্রের উক্ত ২ সদস্যকে আটক করে ডিবি পুলিশ। মানবপাচারকারী চক্রের মালয়েশিয়ার চক্র জানতে পেরে ঐদিনই বিকেল ৪টায় অপহৃত রাসেলকে মুক্তি দেয়। মুক্ত হওয়া রাসেল মালয়েশিয়ায় নিরাপদে তার আত্মীয়ের কাছে অবস্থান করছে।

এ ঘটনায় নরসিংদী মডেল থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে। মানবপাচারকারী চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেফতারের অভিযান চলমান রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।