SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ২৭-০১-২০২০ ২১:৪৯:৩৫

বন্ধুদের গাছে বেঁধে তিন ছাত্রীকে 'গণধর্ষণ'

rape

টাঙ্গাইলে ঘাটাইলে নবম শ্রেণির তিন ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় কয়েকজন বখাটের বিরুদ্ধে। রোববার (২৬ জানুয়ারি) বেড়াতে গিয়ে ঘাটাইলের একটি বন এলাকায় তারা ধর্ষণে শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ।

এ ঘটনায় এক ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে ঘাটাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। 

এদিকে, ওই বখাটেদের খুঁজে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী ও স্থানীয়রা। 

ওই ছাত্রীদের স্বজনরা জানান, রোববার (২৬ জানুয়ারি) স্কুলের মিলাদ মাহফিলের অনুষ্ঠান ছিলো। মিলাদ শেষে বিকেলের দিকে নবম শ্রেণির চার ছাত্রী ও তাদের ‍দুই বন্ধু মিলে ঝড়কা বন এলাকায় বেড়াতে যায়। এসময় স্থানীয় ১০/১২ জন বখাটে তাদের পিছু নেয়। পরে গভীর জঙ্গলের ভিতরে গেলে বখাটে যুবকরা তাদের ওপরে আক্রমণ করে এক ছাত্রী ও দুই বন্ধুকে গাছের সাথে বেঁধে বাকী তিন ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে সন্ধ্যা হলে ধর্ষকরা তাদের রেখে পালিয়ে যায়। পরে ধর্ষণের শিকার এক ছাত্রীর নানীর বাড়ি বন এলাকার কাছে থাকায় সবাই মিলে সেখানে আশ্রয় নেয় তারা।

পরে নানীর বাড়ির লোকজন ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীদের বাড়িতে সংবাদ দিলে পরিবারের লোকজন ঘাটাইল থানায় বিষয়টি অবহিত করে। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। 

এ ঘটনায় এক ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জনকে আসামি করে ঘাটাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ধর্ষণের শিকার ছাত্রীদের ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জানিয়েছেন, চার ছাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করে প্রাথমিকভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে। শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্ষত রয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পূর্ণ হলে বিস্তারিত জানা যাবে।

ঘাটাইল থানার তদন্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, ওই চার ছাত্রী ও দুই বন্ধু মিলে বনের ভেতর বেড়াতে গিয়ে তিন কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আসামি গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।