SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon প্রবাসে সময়

আপডেট- ১৬-০১-২০২০ ১৪:৩৪:৪৮

শ্রমিক নিয়োগে নতুন চুক্তির দ্বারপ্রাপ্তে বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া

malay-worker

অবৈধ শ্রমিক গমন রোধ এবং শ্রমিক নিয়োগে নতুন চুক্তির দ্বারপ্রাপ্তে বাংলাদেশ এবং মালয়েশিয়া। গত সপ্তাহে মালয়েশিয়া জানায়, তারা বাংলাদেশের সাথে শূন্য মূল্যে শ্রমিক নিয়োগের চুক্তি বিবেচনা করছে। এই চুক্তি সম্পন্ন হলে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে কোনো খরচ লাগবে না। সেক্ষেত্রে শ্রমিক নিয়োগের সার্ভিস চার্জ, বিমান ভাড়া, ভিসা ফি, স্বাস্থ্য পরীক্ষা, নিরাপত্তা ব্যয়সহ অন্যান্য ব্যয় বহন করবে নিয়োগদানকারী প্রতিষ্ঠান।

এর আগে অভিবাসী শ্রমিক পাঠানো এজেন্সি এবং দালালদের দ্বারা অতিরিক্ত পারিশ্রমিক অর্থ নেয়া হচ্ছে, এমন উদ্বেগের কারণে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক পাঠানো নিষিদ্ধ করেছিল মালয়েশিয়া।

বাংলাদেশ থেকে বিদেশে শ্রমিক নিয়োগে মধ্যস্থতাকারীদের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। শ্রমিক এবং নিয়োগকারীদের এক জায়গায় নিয়ে আসার পরেও অনেক সময় মধ্যস্থতাকারীরা চাকরি সম্পর্কে ভুয়া প্রতিশ্রুতি দেন। অনেক সময় শ্রমিকদের পারমিট আটকে দিয়ে অতিরিক্ত ফি আদায় করে।

বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আহমেদ মুনিরুস সালেহীন রয়টার্সকে জানান, নিয়োগ ব্যয় অপসারণ বা বিপুল পরিমাণ হ্রাস করায় মালয়েশিয়ায় অভিবাসী শ্রমিকদের শোষণের হাত থেকে রক্ষা করবে। তিনি বলেন, 'অভিবাসন ব্যয় কমিয়ে ফেললে অবশ্যই তা মানব পাচার রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। যে দেশ থেকে শ্রমিক যাবে আর যে দেশ শ্রমিক নেবে অবশ্যই উভয়কেই বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা উচিত।'

এদিকে শুধু অভিবাসন ব্যয় কমিয়ে প্রবাসী শ্রমিকদের সুরক্ষা দেবে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের অভিবাসন বিশেষজ্ঞ মেরিনা সুলতানা। তিনি বলেন, 'এটা একদম ঠিক প্রবাসী শ্রমিকদের অনেক বেশি টাকা খরচ করতে হয়। তবে অর্থ কমিয়ে বা শূন্য করে প্রবাসীদের সুরক্ষা দেয়া সম্ভব নয়। সরকারকে পুরো ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে হবে।'

আগের চুক্তির আওতায় ২০১৬ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার বাংলাদেশি মালয়েশিয়ায় শ্রমিক হিসেবে গমন করেছিল। সরকারি হিসেবে প্রত্যেক শ্রমিক বাংলাদেশি মুদ্রা টাকায় ১ লাখ ৫০ হাজার ব্যয় করার কথা থাকলেও বিভিন্ন এজেন্সি এবং মধ্যস্থতাকারীর চাপে এর থেকে কখনো দ্বিগুণ অথবা তিনগুণ অর্থ ব্যয় করতে হয়েছিল। 

বিনা খরচে শ্রমিক নেয়ার বিষয়ে ইতোমধ্যে নেপালের সঙ্গে একটি চুক্তি সম্পন্ন করেছে মালয়েশিয়া।