SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ২০-১১-২০১৯ ২২:৫৪:১৯

অভিষেক টেস্টের দুইজন ছাড়া সবাই থাকবেন ইডেনে

player

শুধু উৎসবে যোগ দেয়া নয়। ইডেন টেস্টে আমন্ত্রিত বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টের ক্রিকেটাররা ভারতের কাছে চাইবেন আগের থেকে বেশি ক্রিকেট সহযোগিতা। ভারতের রাজ্যভিত্তিক দলগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের বয়সভিত্তিক দলগুলোর ম্যাচ আয়োজনের চেষ্টা করবেন দুর্জয়-বাশাররা। সেঞ্চুরিয়ান আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও ব্যাটসম্যান আল শাহরিয়ার রোকন ছাড়া অভিষেক টেস্টের সব সদস্যই যাচ্ছেন কলকাতায়।

'সিটি অব জয়' কলকাতা এখন গোলাপিময়। চারদিকে উৎসবের আবহ। তারকাদের মেলা বসবে। টাইগারদের প্রথম টেস্টের দল আমন্ত্রিত। তর সইছেনা কারো। অধিনায়ক নাঈমুর আগে ভাগেই চলে গেছেন। যাওয়ার আগে এমন উচ্ছ্বাস তার মুখে।

অভিষেক টেস্ট দলের অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয় বলেন, সাইজ চেঞ্জ হয়ে গেছে, অভিষেক টেস্টের ব্লেজার কারো লাগবে না। বোর্ড থেকে নতুন করে ব্লেজার দেওয়া হয়েছে।

ব্যাটসম্যান হাবিবুলও রোমাঞ্চিত। এমন সুযোগ খুব কমই আসে। নিজেদের মধ্যেইতো দেখা সাক্ষাত হয় না। সবাই যার যার মতো ব্যস্ত। সৌরভ গাঙ্গুলি একটা উপলক্ষ এনে দিয়েছেন। হাবিবুল বাশার আগে যাননি বলে একইসঙ্গে ইডেন দর্শনও হয়ে যাব।

অভিষেক টেস্ট দলের ব্যাটসম্যান হাবিবুল বাশার বলেন, আমি ইডেনে কোন টেস্ট ম্যাচ খেলিনি। সেখানে কোন ম্যাচ দেখিওনি। একটা সুযোগ হচ্ছে ইডেনে বসে টেস্ট ম্যাচ দেখার। বাংলাদেশ-ভারত প্রথমবার দিবা-রাত্রি টেস্ট ম্যাচ খেলবে। এটা ইতিহাসের সঙ্গী হতে পার।

শুধুই কি যাওয়া। নিশ্চয়ই আছে কিছু চাওয়া পাওয়া। ক্রিকেট দূতিয়ালি এগিয়ে যাবে। ভারতীয় দলের সে সদস্যরাও তো আছেন নানা গুরুত্বপূর্ণ জায়গায়। তাদের কাছেও চাওয়া যাবে। হাবিবুলের ভাষায়, কোনো রাজ্যের সঙ্গে জুনিয়র টাইগারদের কিছু ম্যাচ খেলার ব্যবস্থাও নিশ্চয়ই করা যাবে।

হাবিবুল আরও বলেন, আমরা তাদের অন্যপ্রদেশের সঙ্গে একটা চুক্তি যেতে চাই। যেখানে আমাদের বয়সভিত্তিক দলগুলো, 'এ' ও ইর্মাজিং দল তাদের সাথে যাতে খেলতে পারে।  

দুর্জয় বলেন, ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অনেক পুরানো। এবং সব সময় ভালো সম্পর্ক ছিলো।

আমিনুল ইসলাম বুলবুল, আল শাহরিয়ার রোকন ছাড়া সবাই যাচ্ছেন। সব আনন্দ সার্থক হবে গোলাপি বলের টেস্টে যদি ইতিবাচক খেলে বাংলাদেশ।