SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ২০-১১-২০১৯ ১৪:৫৫:০৩

‘সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবসম্মত নয়’

thak-fakhrul

সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবসম্মত নয় বলেই ধর্মঘট হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার  (২০ নভেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁও শহরের কালীবাড়িস্থ বাস ভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, নতুন সড়ক পরিবহন আইনটি বাস্তবসম্মত নয়। এটা দরকার তবে বাস্তবসম্মত নয়, এটিকে আরো গুরুত্ব দিয়ে সংশ্লিষ্ট স্টক হোল্ডারদের নিয়ে আলোচনায় বসে এ আইন প্রণয়ন করা উচিত ছিল। তাহলে আজ এই সংকট তৈরি হতো না। তারা নিজেদের (সরকার) মনে করে রাজা তাই অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করার দরকার বলে মনে করে না।

এসময় নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়া সরকারের ব্যর্থতা বলেও জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি আরো বলেন, এই সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় ব্যর্থ হয়েছে। তাই দেশে এ সময়ে চাল, পেয়াঁজ-লবণ সংকট দেখা দিয়েছে। দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে সরকার। কোথাও আইনের সুশাসন নেই। দুঃশাসনের যাতাকলে সাধারণ মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। এই পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের একমাত্র উপায় গণঅভ্যুত্থান।

এগুলো বিছিন্ন ঘটনা আমি মনে করি না, এ সরকার ব্যর্থ। তাদের সুশাসন নেই সে ব্যর্থ। আগে জানত না লবণের এ সমস্যা হবে, পেঁয়াজের এ সমস্যা হবে, কেন জানে নাই এমন প্রশ্ন রেখে মির্জা ফখরুল বলেন, কারণ এগুলোর দিকে তাদের নজর নেই।

কাদের নজর মেগা প্রজক্টের দিকে, বিশাল বিশাল প্রজেক্ট করবে টাকা বানাবে, সেই টাকা বিদেশে পাচার করে বিদেশে বাড়ি বানাবে। এটা আমার কথা নয় ফিন্যান্সিয়াল ইনক্লুশন গ্লোবাল ইনশিয়েটিভ (এফআইজিআই)বলেছে। ২৮ লাখ কোটি টাকা পাচার হয়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বের হলে যে সমস্যা হচ্ছে এ  সংকটটা কাটিয়ে উঠতে পারত। সরকার যদি খালেদা জিয়ার সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন এবং করে এ দেশকে সংকট থেকে দেশ ও জাতিকে মুক্ত করা যাবে।