SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১৮-১১-২০১৯ ১৭:২২:১৩

কেন মাশরাফীকে নিতে দলগুলোর গড়িমসি?

mashrafee

বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফী বিন মুর্তজা। অবাক করা বিষয়, চার বারের বিপিএল চ্যাম্পিয়ন অধিনায়ককে দলে টানতে বেশ গড়িমসি ছিলো দলগুলোর।

যদিও শেষ পর্যন্ত দল পেয়েছেন তিনি। তামিম ইকবালের সঙ্গে তাকেও নিয়েছে ঢাকা প্লাটুন। এবারের প্লেয়ার্স ড্রাফটের প্রথম ডাকেই তামিমকে দলে নেয় ঢাকা। কিন্তু ড্রাফটের প্রথম চার দফা ডাকা হয়ে গেলেও মাশরাফিকে নিতে আগ্রহ দেখায়নি কোনও দল। শেষমেশ দশম ডাকে ম্যাশকে দলে ভেড়ায় ঢাকা।

কিন্তু বিপিএলের ইতিহাসে এমনকি বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল অধিনায়ককে দলে নিতে কেনো এত গড়িমসি?

রংপুর রেঞ্জার্সের টিম ডিরেক্টর আকরাম খান জানান, বাজেটে দৃষ্টি রেখে তারুণ্যনির্ভর দল গোছানোর পরিকল্পনা ছিলো তাদের। আর তাই 'এ+' ক্যাটাগরির মাশরাফির প্রতি আগ্রহ দেখাননি তারা। 'এ+' ক্যাটাগরির চার ক্রিকেটারের কেউই নেই এই দলে।

আকরাম খান বলেন, দল কেমন হবে সেটা নিয়ে প্রথমেই আমরা চিন্তাভাবনা করেছি। আমাদের বাজেট বড় একটা ফ্যাক্টর। যেহেতু টি-২০ ফরম্যাট তাই তরুণ খেলোয়াড়দের উপর নির্ভর করতে চেয়েছি। ড্রাফটে দল তো মনের মত হয় না। তারপরও আমরা যে দল করেছি আল্লাহর রহমতে ভালোই করেছি।

এদিকে মাশরাফিকে দলে ভেড়ানোর বিষয়ে ঢাকা প্লাটুনের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, শুরুতে আসলে ডাকার মতো সুযোগ ছিলো না। এ প্লাস ক্যাটাগরির একজনকেই নিতে পারবো। এ করণেই ডাকতে পারিনি। প্রথমেই যেহেতু তামিমকে নিয়েছি। তাই মাশরাফিকে ডাকার কোনো সুযোগ ছিলো না। এজন্যই প্রথমে ডাকা হয়নি।

এদিকে 'এ+' ক্যাটাগরির তামিম থাকার পরেও মাশরাফিকে দলে নেয়ায় নিয়ম ভঙ্গ হয়েছে বলে ঢাকার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে সালাউদ্দিন বলেন, নিয়মের ভেতর থেকেই দলে নেয়া হয়েছে মাশরাফিকে।

তিনি বলেন, কোনও নিয়ম ভাঙ্গা হয়নি। আমি অনুমতি নিয়েই তাকে দলে নিয়েছি।
 
আসলে নিয়মটা কি তা জানিয়েও দিয়েছেন সালাউদ্দিন। তিনি বলেন, নিয়ম হচ্ছে, এ+ ক্যাটাগরি থেকে দুইজন খেলোয়াড় নেয়া যাবে যদি অবিক্রীত থেকে যায়। এর জন্য বাড়তি যে টাকাটা খরচ হবে সেটা বোর্ডকে পরিশোধ করতে হবে।