SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১৬-১১-২০১৯ ০২:০৬:২৩

বাংলাদেশ ওমানের বিপক্ষে হারলেও ইতিবাচক মনে করছেন সাবেকরা

bd-foot-reax

শক্তিশালী ওমানের বিপক্ষে হারলেও, প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যাচের প্রথমার্ধের লড়াইটা ছিল ইতিবাচক। এমনটাই মনে করেন জাতীয় দলের দুই সাবেক ফুটবলার হাসানুজ্জামান খান বাবলু ও ইমতিয়াজ আহমেদ নকীব। তাদের মতে দলের বেশ কজন তরুণ ফুটবলার বেশ সম্ভাবনাময়ী, এদের হাত ধরে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশ দল আরো পরিণত হবে। সেইসঙ্গে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা অন্তত একটি জয় পেলে তা হবে দেশের ফুটবলের জন্য বড় অর্জন।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে এ পর্যন্ত চারটি ম্যাচ খেলে ৩টি তে হারের তেঁতো স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। সবশেষ ম্যাচে ওমানের কাছে ৪-১ গোলে হেরে যায় জেমি ডের শিষ্যরা। ৩৭ বছর আগে ১৯৮২ সালেও ওমানের কাছে পরাজিত হয় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। অবশ্য তখনকার ওমানের সাথে বর্তমান দলটি যোজন যোজন এগিয়ে। যার প্রমাণ ফিফা র‌্যাংকিং। ওমান ৮৪ তম স্থানে থাকলেও, বাংলাদেশ ঠিক ১০০ ধাপ পিছিয়ে।

ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের আশা করার কিছুই ছিল না। মধ্যপ্রাচ্যের শক্তিশালী এই দলটির সাথে লড়াই করাটা বাংলাদেশের জন্য ছিল বেশ চ্যালেঞ্জিং। যদিও কাতার ও ভারতের বিপক্ষে লড়াই করার অনুপ্রেরণার সঙ্গে সাহসকে পুঁজি করে মাঠে নামে রায়হান- জীবন-জামাল ভুইয়ারা। মূলত ওমানের টোটাল ফুটবলের কাছে হার মানে জেমি ডে বাহিনী। বাংলাদেশ হারলেও, সার্বিক বিচারে ফুটবলারদের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট সাবেকরা।

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক ফুটবলার হাসানুজ্জামান খান বাবলু বলেন, সার্বিক দিক দিয়ে আমাদের থেকে ওমান দল অনেক এগিয়ে। তবুও বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা উজাড় করে খেলার চেষ্টা করেছে। 

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক ফুটবলার ইমতিয়াজ আহমেদ নকীব বলেন, সব মিলিয়ে বাংলাদেশ খারাপ খেলেনি। আমরা ওদের থেকে অনেক স্ট্যান্ডার্ড।

সাবেকদের মতে, বিশ্বকাপ বাছাইয়ে অন্যন্য দলগুলোর চেয়ে তুলনামূলকভাবে বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে আছে। তারুণ্য নির্ভর এ দলকে পরিকল্পনা অনুযায়ী উন্নত প্রশিক্ষণ আর সুযোগ সুবিধা দিলে কয়েক বছরের মধ্য বেশ পরিনত হবে বলে মনে করেন সাবেকরা।

ইমতিয়াজ আহমেদ নকীব বলেন, ওরা আমাদের থেকে অনেক বেটার, আমাদের দল এখনও ওই পর্যন্ত যাইনি। বাংলাদেশ দল তারুণ্য নির্ভর, এদের সময় দিলে ভালো কিছু করবে।

এদিকে, বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে বাকি ম্যাচ গুলো থেকে বাংলাদেশ অন্তত একটি জয় পেলে, তা দেশের জন্য বড় অর্জন হবে বলে মনে করেন সাবেক এই দুই ফুটবলার।