SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৫-১১-২০১৯ ১৮:১৮:০৫

টিফিনের টাকায় ৫৫ হাজার বৃক্ষরোপণ

natore-tree

জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় নাটোরের ১৪৬ টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা, একদিনের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে ৫৫ হাজার বৃক্ষরোপণ করেছে। এই কর্মসূচির উদ্যোক্তা মনে করেন, বৃক্ষরোপণ আন্দোলনের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের যুক্ত করা গেলে সারাদেশে প্রায় ৫ কোটি গাছের চারা রোপণ সম্ভব।

সবুজের সমারোহে বাসযোগ্য পৃথিবী গড়তে বৃক্ষরোপণের উদ্যোগ নিলো শিক্ষার্থীরা। নিজেদের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে, তা দিয়ে নানা ধরনের গাছের চারা কিনলো তারা।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার ১৪৬টি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং কলেজের প্রায় ৫৫ হাজার শিক্ষার্থী, এদিন ১০ টাকা করে শিক্ষকদের কাছে জমা দেয়। সে টাকায় কেনা হয় ৫৫ হাজার ফলদ ও বনজ গাছের চারা। এগুলো নিজের বাড়ির আঙিনায় রোপণ করার কথা জানায় শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, এর মাধ্যমে আমরা জলবায়ু পরিবর্তন রোধে ভূমিকা রাখতে পারছি।

শিক্ষার্থীদের এই মহৎ কাজে সহায়তা ও পরামর্শ দেয়, 'এক দিনের টিফিনের পয়সা বাঁচিয়ে গাছ রোপণ আন্দোলন' নামের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা জুবায়ের আল মাহমুদ রাসেল বলেন, শিক্ষার্থীদের বলেছিলাম একদিন ঝালমুড়ি না খেয়ে মাত্র ১০টাকা দিয়ে একটা গছে কিনে তোমাদের বাড়িতে লাগাও। বাংলাদেশে ৫ কোটি শিক্ষার্থী। আমি চাই সবাইকে নিয়ে একদিন গাছ রোপন করতে।

বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শেষ দিনে শুক্রবার সকালে উপজেলার সেন্ট জোসেফ স্কুল এ্যান্ড কলেজের প্রায় দুই হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে গাছের চারা বিতরণ করেন পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার। তিনি বলেন, এই দৃষ্টান্ত যদি সারাদেশের শিক্ষার্থীরা গ্রহণ করে তাহলে তো আমাদের ডিপার্টমেন্টের ঘাড়ে যে বোঝা রয়েছে সেটা অনেকাংশে কমে যাবে। প্রত্যেকেই নিজের বাসস্থানকে সুন্দর বাসযোগ্য ভূমিতে পরিণত করতে পারবে।

গত ৫ বছর ‌নাটোরের ১টি, রাজশাহীতে ২টি, পাবনার ১টি ও সিলেটের ১টি উপজেলায় প্রায় সাড়ে ৪ লাখ গাছ লাগানো হয় বলে জানায় সংগঠনটি।