SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাণিজ্য সময়

আপডেট- ১৫-১১-২০১৯ ১৫:০১:১৫

চালের দাম বেড়েছে দিনাজপুরে

dnj-rice

দেশের অন্যতম ধান উৎপাদনকারী জেলা দিনাজপুরের বাজারে হঠাৎ করে চালের দাম বেড়ে গেছে প্রতি কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা। দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন, এটা মিলারদের কারসাজি। এধরনের দাবি কোনমতেই যৌক্তিক নয় বলে পাল্টা মন্তব্য করেছেন চালকল মালিক গ্রুপের নেতারা।

কোন কারণ ছাড়াই দিনাজপুরের বাজারে চালের দাম বেড়ে গেছে। দাম বাড়ার কারণ হিসেবে মিলারদের সিন্ডিকেটকে দায়ী করা হচ্ছে। বাজারে ৫০ কেজির প্রতি বস্তায় বেড়েছে ১৫০ থেকে ২শ টাকা।

২৮ সিদ্ধ চাল ৫০ কেজির বস্তা আগে বিক্রি হতো ১৬৩০ টাকায় এখন বিক্রি হচ্ছে ১৭৪০ থেকে ১৭৫০ টাকায়, ২৯ সিদ্ধ চাল প্রতিবস্তা ১৪৫০ থেকে বেড়ে ১৬০০ টাকায়,

গুটি স্বর্ণা প্রতি বস্তা ১৫০০ বেড়ে ১৭৫০ টাকা ,মিনিকেট ১৯০০ থেকে বেড়ে ২১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কাটারি চাল বেড়েছে কেজি প্রতি ৪ থেকে ৫ টাকা। এ অবস্থায় সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষগুলো বিপাকে পড়েছেন।

মিলারদের কাছে পর্যাপ্ত চাল মজুদ থাকার পরও সিন্ডিকেট করে চালের দাম বাড়ানোর অভিযোগ করছেন পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতারা।

চালের মূল্য বৃদ্ধিতে যেভাবে দোষারোপ করা হচ্ছে তা সঠিক নয় বলে দাবি চালকল মালিক সমিতির নেতার ।

চালকল মালিক গ্রুপের সাবেক সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী বলেন, চাল বা ধানের বাজার দু-তিন টাকা বাড়ছে। আমি মনে করি, আরো বাড়ানো উচিত। কারণ সরকার যে মূল্য দিয়েছে তার থেকে বাজারে চালের মূল্য এখনও কম আছে।

আর বাংলাদেশ অটো, মেজর এন্ড হাসকিং মিল ওর্নাস এসোসিয়েশন মনে করে সরকার ঘোষিত ধান চালের মূল্য অনুযায়ী বাজারে সেই পর্যায়ে দাম বৃদ্ধি হলে কৃষকরা ধানের দাম পাবে।

বাংলাদেশ অটো, মেজর এন্ড হাসকিং মিল ওর্নাস এসোসিয়েশন সহিদুর রহমান  সহ-সভাপতি পাটোয়ারী মোহন বলেন, মিলাররা সিন্ডিকেট করে চালের দাম বেড়েছে। সেটা ভুল ধারণা।

এবার দিনাজপুরে ২ লাখ ৫৭ হাজার হেক্টর জমিতে আমন আবাদ হয়েছে। আর উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা সাড়ে ৭ লাখ মেট্রিক টন।