SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাণিজ্য সময়

আপডেট- ১৫-১১-২০১৯ ১৩:৪৩:৫৫

অনলাইন বিজ্ঞাপনের ওপর যেকোনো সময় কর আরোপ

digital-tax

কেটে গেছে গুগল, ফেসবুকসহ অনলাইন মার্কেটপ্লেসে দেয়া বিজ্ঞাপনের ওপর আরোপিত কর আদায়ের জটিলতা। এনবিআর বলছে, যেকোনো মুহূর্তে শুরু হবে আদায় কার্যক্রম। আর দেশীয় প্রযুক্তিবিদরা বলছেন, সরকারের সহযোগিতা পেলে দেশেই এমন বিজ্ঞাপন প্লাটফর্ম তৈরি করা সম্ভব। যা কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের জন্য হবে আরও বেশি সহায়ক।

বড় হচ্ছে ছোট ছোট ব্যবসায়িক উদ্যোগ, বড়গুলো হচ্ছে সম্প্রসারিত। আর এ ধারায় নিজেদের পণ্য ভোক্তার কাছে সহজে পৌঁছে দিতে উদ্যোক্তারা বেছে নিচ্ছেন নানা উপায়। সেখানে বেশ জনপ্রিয় গুগল, ফেসবুকসহ অনলাইন মার্কেটপ্লেস।

বিটিআরসির এক হিসাব, দেশে ছোট-বড় মিলিয়ে ১৫ থেকে ২০ হাজার প্রতিষ্ঠান নিয়মিত বিজ্ঞাপন দেয় অনলাইনে। ছোট ও মাঝারি উদ্যোক্তারা গড়ে সপ্তাহে ব্যয় করেন ৫ থেকে ১০ ডলার, আর বড়গুলোর প্রতিমাসে ব্যয় ৮ থেকে ১০ হাজার ডলার। সব মিলিয়ে বছরে বিজ্ঞাপন বাবদ সাড়ে ১২০০ কোটি টাকার বেশি নিয়ে যায় ফেসবুক, গুগলসহ অনলাইন মার্কেট প্লেসগুলো।

আগে এই আয়ের ওপর কোনো কর না থাকলেও সম্প্রতি কর আরোপ ও আদায়ের সিদ্ধান্ত নেয় বিটিআরসি। অবশেষে এনবিআরের পক্ষ থেকে সব প্রস্তুতি শেষ করে তা কার্যকর হচ্ছে গেল জুলাই থেকে।

এনবিআর সদস্য আব্দুল মান্নান শিকদার বলেন, ইতোমধ্যেই আমরা মূসকনীতি নির্ধারণ করেছি। জুলাই থেকে ভ্যাট আরোপিত হয়েছে।

জিএফএক্স ঢাকা বিশ্বের ২য় বৃহত্তম অ্যাকটিভ ফেসবুক ব্যবহারকারী শহর, আর ইন্টারনেট ও অনলাইন সেবার হিসাবে দক্ষিণ এশিয়ায় অনেক এগিয়ে বাংলাদেশ। এ অবস্থায় সরকারের সহায়তা পেলে দেশেই বড় মাপের বিজ্ঞাপন প্লাটফর্ম গড়ে তোলা সম্ভব মনে করেন তরুণ প্রযুক্তিবিদ ও নতুন উদ্যোক্তারা।

এইমবুক আইটি লি. চেয়ারম্যান ড. মো মহসিন আলী বলেন, বাংলাদেশে বড় সার্ভার, ডাটা সেন্টার করতে হবে।

তাদের দাবি, ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে অনেক দূর এগিয়ে গেলেও এখনও তেমন একটা কাজ হয়নি নিজস্ব সামাজিক যোগাযোগ ও অনলাইন বিজ্ঞাপন প্লাটফর্ম তৈরিতে।