SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১২-১১-২০১৯ ১৪:২৯:২৬

হাসপাতালের ফ্লোরে পড়ে আছে ছোট্ট সোহার নিথর দেহ

soha

রাত আনুমানিক ৩টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় আন্তনগর তূর্ণা নিশীথা ও আন্তনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর পরই চারিদিকে শুরু হয় মাতম। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। আহত হয়েছেন শতাধিক যাত্রী।

অনেকেই এখনও খুঁজে পাননি স্বজনদের। এরই মধ্যে দুটি শিশুর রক্তাক্ত দেহ মনে দাগ কেটেছে সবার। এদের মধ্যে একটি শিশু জীবিত থাকলেও অপর শিশুর নিথর দেহ পড়ে আছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের ফ্লোরে। তার নাম সোহা (৩)। সে হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার সোহেলের মেয়ে।

সোহার মামা জামাল উদ্দিন বলেন, ট্রেন দুর্ঘটনার খবর পেয়ে এখানে ছুটে আসি। হাসপাতালের ফ্লোরে সোহাকে এভাবে দেখব কল্পনাও করিনি।

এদিকে হাসপাতালের ফ্লোরে সোহার নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে কাঁদছে সবাই। হাসপাতালে আনার পর তার পরিচয় পাওয়া না গেলেও কিছুক্ষণ পর জানা যায় হবিগঞ্জের সোহেলের মেয়ে সোহা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা খান বলেন, সম্ভবত সিগন্যালের ভুল বোঝাবুঝিতে এ দুর্ঘটনাট ঘটেছে। দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক জেলা পুলিশের সদস্য, থানা পুলিশ, বিজিবি সদস্য, ফায়ার সার্ভিসের সদস্য জেলা প্রসাশকের কর্মকর্তা সবাই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।