SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১২-১১-২০১৯ ১০:৩৬:১৭

এখনও সহায়তা পাননি পিরোজপুরে বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তরা

pirojpur-somoy

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে পিরোজপুরে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে নদীপাড়ের গ্রামগুলোর মানুষ। আর এতে নিস্ব হয়ে পড়েছে হাজারও পরিবার। তবে এখন পর্যন্ত মেলেনি কোনো সহায়তা। আর এতে ক্ষোভ বিরাজ করছে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মাঝে।

ভুক্তভোগীরা জানান, কঁচা, বলেশ্বর, সন্ধ্যা, কালিগঙ্গা, মধুমতী ও দীর্ঘা নদী দিয়ে বিভক্ত পিরোজপুরের ৭টি উপজেলা। কঁচা ও বলেশ্বর সরাসরি বঙ্গোপসাগরের সাথে যুক্ত থাকায়, খুব সহজেই সমুদ্রের পানি এসব নদী দিয়ে প্রবেশ করে নদী তীরবর্তী গ্রামগুলো ৪-৫ ফুট প্লাবিত হয়েছে। পাশাপাশি প্রবল ঝড়ে বিধ্বস্থ হয়ে গেছে হাজার হাজার ঘরবাড়ি এবং লাখ লাখ গাছপালা। এছাড়া দুইজন নিহত হওয়ার পাশাপাশি আহত হয়েছেন দুই শতাধিক মানুষ।

ঝড়ের কারণে গাছপালা ভেঙে ও উপড়ে পড়ে প্রায় সব রাস্তাঘাট বন্ধ রয়েছে। তবে আঞ্চলিক সড়কগুলোকে সচল করা হয়েছে। বিদ্যুতের লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় জেলার সর্বত্র বন্ধ রয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। আর এতে ভেঙে পড়েছে মোবাইল ও ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক। আর ঝড়ের কারণে গাছপালা, কৃষি জমি এবং অন্যান্য সম্পদের ৩০০ কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি হয়েছে। তবে ক্ষতির এ পরিমাণ আরও বাড়তে পারে।

সব প্রকার প্রাকৃতিক দুর্যোগের শিকার নদী বেষ্টিত জেলা পিরোজপুরে পর্যাপ্ত সরকারি সহায়তা দেয়ার দাবি জানান পিরোজপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মহারাজ।