SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১২-১১-২০১৯ ০৩:১০:৩৯

৬ মাস ম্যাচ নেই নারী ফুটবলারদের

bd-women-foot1

এএফসির ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আগামী ৬ মাসে বাংলাদেশ নারী ফুটবলের কোনো ম্যাচ নেই। এ সময়ে কয়েকটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারলে ফুটবলাররা আরও বেশি দক্ষ হয়ে উঠবে। এমনটাই মনে করেন নারী দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। কোচের সাথে একমত শিষ্যরাও। এদিকে, নারী ফুটবল লিগের মাধ্যমে ফুটবলারদের মনোবল আরও দৃঢ় হবে বলেও জানিয়েছেন ছোটন। এছাড়া পল স্মলির শূন্যতা পূরণে একজন টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের গুরুত্বের কথাও জানান নারী ফুটবলের এই কাণ্ডারি।

গেল সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় এএফসি অনূর্ধ্ব ১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে সামর্থ্য অনুযায়ী খেলার চেষ্টা করেছিল বাংলাদেশের কিশোরীরা। যদিও বি গ্রুপে ৩ ম্যাচে ১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থাকে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

এক মাস বিরতির পর আবারও মাঠে নেমে পড়েছে রিতু- আঁখি -শামসুন্নাহাররা। অনুশীলনে ফুটবলারদের ফিটনেসের পাশাপাশি এএফসি চ্যাম্পিয়নশীপের ভুল গুলো শুধরাতে বিশেষ ভাবে গুরুত্ব দেন কোচ ছোটন। এদিকে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত এএফসির বয়সভিত্তিক পর্যায়ের কোনো টুর্নামেন্ট না থাকায়,শুধু অনুশীলন করেই কাটাতে হবে ক্যাম্পে থাকা ফুটবলারদের। তাইতো নিজেদের চাঙ্গা রাখতে এ সময়ের মধ্য বেশকটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে চায় মারিয়া-মনিকারা।

শিষ্যদের সাথে একমত গুরু গোলাম রব্বানী ছোটনও। নিয়মিত অনুশীলনের পাশাপাশি কয়েকটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারলে ফুটবলাররা আরো বেশি দক্ষ হয়ে উঠবে বলে মনে করেন তিনি। সে সঙ্গে স্মলির শূন্যতা পূরণে একজন টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের গুরুত্বের কথাও জানান নারী ফুটবল দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

এদিকে ডিসেম্বরে নারী ফুটবল লিগ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ছোটনের মতে এ লিগের মাধ্যমে ফুটবলারদের মাঝে চ্যালেঞ্জিং মনোভাবটাও গড়ে উঠবে।

গেল এক মাসে জেলা পর্যায়ে নারীদের ফুটবল ক্যাম্প গুলো সফর করেন ছোটন। সেখান থেকে খুঁজে পাওয়া প্রতিভাবান ফুটবলাররা জাতীয় পর্যায়ে ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন তিনি।