SomoyNews.TV

শিক্ষা সময়

আপডেট- ১৩-১০-২০১৯ ০৯:০২:৩০

সব ক্যাম্পাসেই দলীয় রাজনীতি বন্ধের আহ্বান

student-politics

বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের মৃত্যুর ঘটনায় বুয়েটের সংগঠনভিত্তিক ছাত্ররাজনীতি বন্ধ হবার পর দেশের সব ক্যাম্পাসেই দলীয় লেজুড়বৃত্তিভিত্তিক রাজনীতি বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের স্বতন্ত্র রাজনীতির প্রয়োজন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। 

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার পর নতুন করে আবারো সমালোচনার মুখে ছাত্ররাজনীতি। শুধু আবারারই নয়, একের পর হত্যা, র‌্যাগিং আর গেস্টরুমের নির্যাতন. নানা তিক্ত অভিজ্ঞতায় ছাত্ররাজনীতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন অনেকেই। ঘৃণা আর ক্ষোভ ছাড়া যেন কিছুই অবশিষ্ট নেই ছাত্ররাজনীতির প্রতি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমও সরগরম এ ইস্যুতে। কেউ সরাসরি তুলছেন নিষিদ্ধের দাবি, আবার কেউ বলছেন অপরাজনীতির সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে তৈরি করতে হবে শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ের যৌক্তিক প্লাটফর্ম।

দাবির মুখে এরইমধ্যে বুয়েটে নিষিদ্ধ হয়েছে সব ধরনের রাজনীতি। দলভিত্তিক রাজনীতি চায়না দেশের অন্যান্য ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরাও। 

একজন শিক্ষার্থী বলেন, একক রাজত্বে থাকলেই তারা এই কাজটা করতে পারে। আমাদের দাবিতে একটা ব্যাপার আমরা উল্লেখ করেছি যে দলীয় রাজনীতিগুলা বন্ধ করতে হবে। 

শুধু বুয়েটেই নয়, ছাত্ররাজনীতির সংস্কার করে দেশের প্রতিটি ক্যাম্পাসে দলীয় প্রভাবমুক্ত ছাত্র সংসদ গঠনের পরামর্শ বিশ্লেষকদের।

প্রফেসর ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, ছাত্রসংসদ রাজনীতি করবে আদর্শভিত্তিক। দলীয় লেজুড়ভিত্তিক নয়। ছাত্ররাজনীতি যদি নিষিদ্ধ করা হয় তবে দেশ রসাতলে চলে যাবে। 

ছাত্ররাজনীতির ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে ক্ষমতাকেন্দ্রিক ছত্রচ্ছায়া বন্ধের ওপরও তাগিদ দেন তিনি।