SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ১২-১০-২০১৯ ২০:৪১:৫১

ভারতের আধিপত্য ধরে রাখতেই আবরার হত্যাকাণ্ড : বিএনপি

bnp-mobilize

ভারতের আধিপত্য ধরে রাখতেই বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে বিএনপি। বর্তমান সরকার ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের যেসব চুক্তি করেছে তা এ দেশের নয় বরং ভারতের স্বার্থ রক্ষায় হয়েছে।

শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে জনসমাবেশে এসব কথা বলেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা। তারা বলেন, নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণেই একের পর এর স্বার্থবিরোধী চুক্তি করছে বর্তমান সরকার। এ সরকারের ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই মন্তব্য করে সবাইকে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানান বিএনপির নেতারা।

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যা ও দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তির দাবিতে জনসভার ঘোষণা দেয় বিএনপি। নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ডিএমপির অনুমতি ছাড়াই শনিবার দুপুর ১টা নাগাদ সভা শুরু করে দলটি। এর মধ্যেই পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের সৃষ্টি হয় উত্তেজনা।

পরে অবশ্য পরিবেশ শান্ত হয়ে এলে শুরু হয় সভার মূল কার্যক্রম। সমাবেশে প্রায় সব বক্তাই সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে বেশ কয়েকটি সমঝোতা স্মারক নিয়ে। নেতারা বলেন, দুর্নীতি ও দেশের স্বার্থ বিরোধী কার্যক্রমের জন্য বর্তমান সরকারের পতন সময়ের ব্যাপার।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, ‘সারা বিশ্বই জানে বর্তমান সরকারের ইজ্জত কতটুকু। ফেনী নদীর পানি নিয়ে শেষ পর্যন্ত আবরার হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনা ঘটে গেল।’

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ, বর্তমান সরকার দুর্নীতিতে ডুবে গেছে। এখান থেকে তারা উঠে আসতে পারবে না। এ সরকারের পতন এখন সময়ের ব্যাপার।’

আবরার হত্যার কঠোর সমালোচনা করে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘দেশের স্বার্থবিরোদী সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে জনগণ ফুঁসে উঠেছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকার এ দেশে যারা চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসবাজ, ক্যাসিনোবাজ করে, সন্ত্রাসবাজী সৃষ্টি করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চান। আমরা বিশ্বাস করি আবরার মরে গিয়ে তার রক্ত দিয়ে সরকার পতনের আন্দোলনের সূত্রপাত করে গেছে।’

বেগম জিয়ার মুক্তি ও সরকার বিরোধী আন্দোলনের জন্য নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নেয়ারও আহ্বান জানান দলের শীর্ষ নেতারা।