SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১১-১০-২০১৯ ০১:১৯:০৪

বৃষ্টির কবলে জাতীয় ক্রিকেট লিগের উদ্বোধনী দিনের খেলা

ncl-day-1-copy

বৃষ্টির কবলে পড়েছে জাতীয় ক্রিকেট লিগের ২১ তম আসরের উদ্বোধনী দিনের খেলা। খুলনায় আউট ফিল্ড ভেজা থাকায় খুলনা ও রংপুর বিভাগের প্রথম দিনের খেলা অনুষ্ঠিত হয়নি। বৃষ্টির জন্য মাঠ খেলার অনুপোযোগি থাকায় রাজশাহীতে বরিশাল ও সিলেট বিভাগের খেলাও হয়নি। এদিকে, মিরপুরে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে প্রথম দিন শেষে ৩ উইকেটে ১৪৭ রান করেছে চট্টগ্রাম বিভাগ। এছাড়া ফতুল্লায় রাজশাহী বিভাগের বিপক্ষে দিন শেষে ঢাকা বিভাগের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১৪৩ রান।

সকাল থেকেই আকাশ ছিল মেঘে ঢাকা। যদিও মিরপুরে দ্বিতীয় স্তরের ঢাকা মেট্রো ও চট্টগ্রাম বিভাগের খেলা শুরুর পর কিছুক্ষণের জন্য মেলে সূর্যের দেখা। এরপর অবশ্য কিছু সময় খেলা হয় গুড়িগুড়ি বৃষ্টির মধ্যে। টস হেরে ব্যাটিয়ে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত হয় চট্টগ্রামের। দুই ওপেনার তামিম ও সাদিকুর উদ্বোধনী জুটিতে তোলেন ৮০ রান। তবে কন্ডিশনটা পেসারের জন্য সহায়ক হলেও শহীদুল ও মেহরাব সাফল্যের দেখা পায়নি।২২ তম ওভারে মাহমুদুল্লাহর হাতে বল তুলে দেন মার্শাল আইয়ুব। অধিনায়কে হতাশ করেননি রিয়াদ। সাদিকুরকে ৫১ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরান এ অফ স্পিন অলরাউন্ডার।

মধ্যাহ্ন বিরতির পর মাহমুদুল্লাহ শিকার হন তামিম ইকবাল। ১০৫ বলে ৩ চারে ৩০ রানে আউট হন দেশ সেরা এ ওপেনার। এরপর বেশিক্ষণ টেকেননি মমিনুল হকও। দলীয় ১১৩ ও ব্যক্তিগত ১১ রানে মাহমুদুল্লাহর বলে সামসুর রহমানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

১১৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে কোনঠাসা হয়ে পড়ে চট্টগ্রাম বিভাগ। যদিও এক পর্যায়ে পিনাক ঘোষ ও তাসামুল ইনিংসটাকে মেরামতের চেষ্টা করেন। তবে আলোক স্বল্পতার জন্য নির্ধারিত সময়ের আগেই খেলা শেষ হয়।দিন শেষে ৩ উইকেটে ১৪৭ রান সংগ্রহ করে চট্টগ্রাম। পিনাক ৩০ ও তাসামুল ১৭ রানে অপরাজিত থেকে দ্বিতীয় দিনে আবারো ব্যাটিংয়ে নামবেন।

এদিকে, ফতুল্লায় আউটফিল্ড ভেজা থাকার কারণে রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের ম্যাচটি মধ্যাহ্ন বিরতির পর শুরু হয়। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেই ভাল হয়নি ঢাকা বিভাগের।দলীয় ২৯ রানে ফেরেন আবদুল মজিদ। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে রনি ও জয়রাজের ৮০ রানের জুটিতে প্রতিরোধ গড়ে তোলে ঢাকা। যদিও রাজশাহীর শফিউল ও তাইজুলের দাপুটে বোলিংয়ে ২৫ রানের মধ্য ৫ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় শুভাগত বাহিনী। শেষ পর্যন্ত দিন শেষে ঢাকা বিভাগের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৭ উইকেটে ১৪৩ রান।

অন্যদিকে,খুলনায় আউটফিল্ড ভেজা থাকায় খুলনা ও রংপুর বিভাগের প্রথম দিনের খেলা অনুষ্ঠিত হয়নি। বৃষ্টির জন্য মাঠ খেলার অনুপোযোগি থাকায় রাজশাহীতে বরিশাল ও সিলেট বিভাগের ম্যাচেও একটি বলও মাঠে গড়ায়নি।