SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৪-০৮-২০১৯ ০৪:৪৯:৪৪

হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

hajj-suffer

বাংলাদেশ সরকার নানা পদক্ষেপ নিলেও কিছু বেসরকারি হজ এজেন্সির অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে সৌদি আরবে প্রতারিত হয়েছেন বেশকিছু হাজি। চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে মা আম্বিয়া ও এম তাইব্যা ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলসের মাধ্যমে হজ করতে যাওয়া ৪১৬ জন হাজি, এজেন্সির অসহযোগিতায় সৌদি আরবের মক্কায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে মক্কার বাংলাদেশ হজ অফিস। 

প্রতিবছরের মতো এবারো কিছু হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। এজেন্সিগুলো নানা সুবিধা দেওয়ার কথা বললেও সৌদি আরব পৌঁছে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন হাজিরা। মা আম্বিয়া ও এম তাইব্যা ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলসের মাধ্যমে পবিত্র হজ পালনে আসা হাজিদের অভিযোগ, তাদের নিম্নমানের খাবার এবং অপর্যাপ্ত পানি সরবরাহ করছে এজেন্সিগুলো। সেইসঙ্গে থাকার জায়গা নিয়েও অসন্তোষ তাদের।

একজন বলেন, আমাদের এনে কোনো রকম হোটেলে ফেলে রেখে দিছে, কোনো খবর নিচ্ছে না। ঠিক মতো খাবার দিচ্ছে না।

এ বিষয়ে মক্কায় বাংলাদেশ হজ অফিস জানায়, এখন পর্যন্ত ৫৬টি বেসরকারি হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ এসেছে।

মক্কা হজ অফিস কাউন্সিলর মোহাম্মদ মাকসুদুর রহমান বলেন, হজ মিশন থেকে সরকারি কর্মকর্তাদের মাধ্যমে একটা তদন্ত করা হচ্ছে। যদি সত্যতা পাওয়া যায়, তাহলে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

অন্যদিকে হজ এজেন্সিগুলোর সংগঠন হাবের দাবি, চলতি বছর লক্ষাধিক হাজি সংগঠনের সদস্যদের মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে পবিত্র হজ পালন করেছেন।

হাব সভাপতি শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, সকলের পছন্দ, সকলের চিন্তা কিন্তু সমান থাকে না। এই বিষয়গুলো আমরা দেখছি।
 
তবে কোনো প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে হাব।