SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ২২-০৮-২০১৯ ০০:২৭:২৩

এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভকে হারাল ঢাকা আবাহনী

abahani-win1

ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে ঢাকা আবাহনী। এএফসি কাপের ইটারজোন প্লে অফের শ্বাসরূদ্ধকর সেমিফাইনালে এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভকে ৪-৩ গোলে হারিয়েছে লেমস শিষ্যরা। ২৮ আগস্ট ফিরতি পর্বে উত্তর কোরিয়ার ক্লাবটির সঙ্গে ড্র করলেই ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাবে আবাহনীর।

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে রেফারির শেষ বাশির সঙ্গে শুরু জয় উৎসব। দেশের ফুটবল ইতিহাসে এ এক মাহেন্দ্রক্ষণ। এএফসি কাপে ইন্টার জোন প্লে অফের সেমিফাইনালের প্রথম পর্বে শক্তিশালী উত্তর কোরিয়ার ক্লাব এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভের বিপক্ষে জয়। উৎসবে মেতে ওঠে পুরো স্টেডিয়াম। ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে আবাহনী। তাদের ঘিরে স্বপ্নের বীজ এখন কোটি বাঙ্গালী ফুটবল প্রেমীর হৃদয়ে।

ম্যাচের আগে অবশ্য কোরিয়ান ক্লাবটির বিপক্ষে জয়ের স্বপ্ন খুব কম সমর্থকই দেখেছিলেন। কারণ একেতো ইনজুরিতে বিপর্যস্ত আবাহনীর রক্ষণভাগ। তার ওপর শক্তির দিক থেকে অনেকটা এগিয়ে কোরিয়ার ক্লাবটি। কিন্তু মন থেকে চাইলে যে সব সম্ভব তা আবাহনীর ফুটবলারদের দেখে প্রমাণ হল আরো একবার।

ম্যাচের শুরু থেকেই আগ্রাসী প্রিমিয়ার লিগের রানার্সআপরা। ৩ মিনিেই বঙ্গবন্ধু পাড়ায় কাঁপন ধরিয়ে দেন সাদ। গোল না হেও, তার চেষ্টা মন ভরিয়েছে সমর্থকদের। ১১ মিনিটে সুযোগ তৈরি করেছিলেন মামুন মিয়াও। কিন্তু অভিজ্ঞ এই তারকাও বল জ্বালে পাঠাতে পারেননি।

অবশেষে আসে সে কাঙ্ক্ষিত ক্ষণ। ৩৩ মিনিটে নায়ক মিডফিল্ডার সোহেল রানা। তার গোলেই লিড আবাহনীর। আনন্দের রেশ ছিলো মাত্র দু'মিনিট। স্বাগতিক রক্ষণভাগের চোখে ধুলো দিয়ে সমতা ফেরান এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভের চো জোং হিয়োক।

নাটকের সবে শুরু। ৩৭ মিনিটে রায়হানের সহায়তায় আবাহনী সমর্থকদের প্রাণে স্বস্তি ফেরান নাবিব নেওয়াজ জীবন। প্রিমিয়ার লিগে ১৬ গোল করা জীবনে এগিয়ে যায় আবাহনী।

বিরতির পর আক্রমণাত্মক হয়ে খেলে এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভ। ফলাফল আবারো সমতায় এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভ। ৫৪ মিনিটে অতিথিদের হয়ে গোল করেন রিম চোল মিন। ক্ষনে ক্ষনে বদলায় ম্যাচের রং। রোমাঞ্চকর ম্যাচে আবাহনীকে ৫৭ মিনিটে জয়ের স্বপ্ন উপহার দেন সানডে।

৬১ মিনিটে ম্যাচের মোর আবারো ঘুড়িয়ে দেন ঢাকার ফটুবলের পরীক্ষীত সৈনিক সানডে। ৪-২ গোলে এগিয়ে থাকা আবাহনীকে ৭৬ মিনিটে শেষ ধাক্কা দেন পাক সং রক। তবে, দক্ষতার সঙ্গেই সে ধাক্কা সামাল দিয়েছেন লেমস শিষ্যরা। ২৮ আগস্ট ফিরতি পর্বে ড্র করলেই দেশের ফুটবলের প্রথম ক্লাব হিসেবে ইন্টার জোন প্লে অফের ফাইনালে উঠে যাবে আবাহনী।