SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ১৭-০৮-২০১৯ ২২:৩০:৩২

ফতুল্লায় ৫ বছরের শিশুকে ঘরে ডেকে এনে ‘ধর্ষণ’

chailed-rape-somoy

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে। নির্য়াতিত শিশুটিকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে সদরের জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৬ আগস্ট) রাতে সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার পাগলা রেলস্টেশন এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। তবে ঘটনার পর শিশুটিকে নিজের ঘরেই ফেলে রেখে অভিযুক্ত যুবক সোহেল মিয়া (২৬) আত্মগোপন করেছে।

পুলিশ ও ধর্ষিতা শিশুর পরিবার জানায়, শিশুটির বাবা অটো রিকশা চালক ও মা গৃহিনী। অভিযুক্ত সোহেল তাদের পাশের বাড়ির ভাড়াটিয়া। দীর্ঘদিন পাশাপাশি থাকায় সোহেল শিশুটিকে ভাতিজি বলে ডাকতো। সোহেল শিশুটিকে তার ঘরে ডেকে নিয়ে প্রায় সময় শরীর ম্যাসেজ করাতো।

শুক্রবার রাত আটটার দিকে সোহেল শরীর ম্যাসেজ করানোর তথা বলে শিশুটিকে তার ঘরে ডেকে নিয়ে যায়। ম্যাসেজ করানোর সময় এক পর্যায়ে সোহেল শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এ অবস্থায় প্রচুর রক্তক্ষরণে শিশুটির গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে সোহেল শিশুটিকে তার নিজ ঘরের মেঝেতে ফেলে রেখেই পালিয়ে যায়।

পরে শিশুটির কান্নার শব্দ শুনে তার মা সোহেলের ঘরে গিয়ে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে এবং স্থানীয়দের সহাতায় ফতুল্লা থানায় গিয়ে অভিযোগ দেন। পরে পুলিশের পরামর্শ ও সহযোগিতায় শিশুটিকে সদরের জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, শিশুটি ঘর্ষণের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ এসেছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াসহ অভিযুক্ত সোহেলকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।