SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon খেলার সময়

আপডেট- ১৭-০৮-২০১৯ ১৩:১৯:০৫

মৌসুমের প্রথম ম্যাচেই হার দেখল মেসির বার্সেলোনা

barca-

লা লিগায় নিজেদের প্রথম ম্যাচেই হোঁচট খেলো বার্সেলোনা। বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের ১-০ গোলে হারের তিক্ততা দিয়েছে অ্যাথলেটিক বিলবাও। কাতালানদের মতই বুন্দেসলিগায় শুরুটা ভাল হয়নি বায়ার্ন মিউনিখের। হার্থা বার্লিনের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে বাভারিয়ানরা।

স্যান ম্যামেসে নতুন শুরু। সবার মাঝেই একটা ভিন্ন রোমাঞ্চ। মিশন এবার টানা তৃতীয়বারের মত লিগ শিরোপা অর্জন। শুরুতেই প্রতিপক্ষ অ্যাতলেটিক বিলবাও। যাদের বিপক্ষে ২০১৩ সালের পর আর কখনো হারের মুখ দেখেনি বার্সেলোনা। তাই বেশ আত্মবিশ্বাসী ছিলো কাতালানরা। প্রথম ম্যাচে নেই দলের মূল ভরসা মেসি। কিন্তু তার শূন্যতা পূরণে তারকার কমতি ছিলো ভালভার্দের দলে। গেল আসরটা দারুন কেটেছে কাতালানদের। এ মৌসুমটাও জয়ের উৎসব দিয়ে শুরু করতে চেয়েছিলো বার্সা।

কিন্তু চাওয়া আর পাওয়ার মাঝে ছিলো বিস্তর ফারাক। শুরু থেকেই আগ্রাসী রুপে দেখা যায়নি কাতালানদের। ৩৩ মিনিটে গোলের সুযোগ নষ্ট করেন লুইস সুয়ারেজ। উরুগুইয়ান এই তারকার শট পোস্টে লেগে ফিরে আসে। ম্যাচে আরো দারুন কিছু করে দেখানোর আশায় ছিলেন সুয়ারেজ। কিন্তু চার মিনিট পরই পেশিতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

৪৪ মিনিটে আবারো বার্সেলোনা সমর্থকদের হতাশ করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রাফিনহ। দ্বিতীয়ার্ধে ছিলো সে একই চিত্র। উল্টো ৮৯ মিনিটে স্বাগতিক সমর্থকদের আনন্দে ভাসান স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড আদুরিজ। বাইসাইকেল কিকে তার চমতার গোলে মুগ্ধ হন মাঠে থাকা দর্শকরা। আর এই গোলেই কপাল পোড়ে টানা তৃতীয়বারের মত লিগ শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখা বার্সেলোনার। ১-০ গোলের জয়ে লিগ শুরু হয় বিলবাওয়ের।

বার্সেলোনার মতই বুন্দেসলিগায় শুরুটা হতাশার হয়েছে লিগ চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের। টানা সপ্তমবারের মত লিগ শিরোপা জয়ী বাভারিয়ানদের জয় দেখার আশায় অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনায় ভিড় করেছিলেন সমর্থকরা। কিন্তু তাদের খুব একটা রোমাঞ্চ উপহার দিতে পারেননি নিকো কোভাচ শীষ্যরা। ২৪ মিনিটে গোলের শুরু করেন লেওয়ানডস্কি।

কিন্তু অতি আত্মবিশ্বাসী বায়ার্নকে ধাক্কা বেশি সময় নেয়নি হার্থা বার্লিন। ৩৬ মিনিটে সমতা ফেরান লুকেবাকিও। অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনায় বায়ার্ন সমর্থকদের হতাশাটা আরো বাড়ান গ্রুজিচ। হারের শঙ্কায় থাকা বায়ার্ন মিউনিখকে ৬০ মিনিটে রক্ষা করেন লেওয়াডস্কি। পেনাল্টি থেকে তার গোলেই ২-২ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাভারিয়ানরা।