SomoyNews.TV

পশ্চিমবঙ্গ

আপডেট- ১৯-০৭-২০১৯ ১২:১৪:৫২

এবার জেরার মুখে প্রসেনজিৎ

prosenjit

নিজের আইনজীবীকে নিয়ে সল্টলেকের গোয়েন্দা দফতরে উপস্থিত হয়েছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার (১৯ জুলাই) স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় সেখানে হাজির হন বুম্বা নামে পরিচিত এই অভিনেতা। তার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভারতের সবচেয়ে আলোচিত অর্থনৈতিক কেলেঙ্কারি ‘চিটফান্ড কাণ্ড’-এর সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে।

রোজভ্যালি নামের সংশ্লিষ্ট চিটফান্ড প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে প্রসেনজিৎ বেশ কয়েকটি কাজ করেছেন। এছাড়াও তার সঙ্গে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গেও ভালো সম্পর্ক ছিল। বহুবার তারা একসঙ্গে বিদেশ ভ্রমণও করেছেন। 

গোয়েন্দা সূত্রের খবর, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সাত থেকে ১০ কোটি টাকার আর্থিক সম্পর্কের হদিশ পেয়েছেন গোয়েন্দারা। সেই অর্থ কি কারণে তার প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হয়েছিল কিংবা সেই অর্থের উৎস কি ছিল সেই সবয় বিষয়ে আজ জেরা করবেন বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতাকে।

একদিন আগেই একই দফতরে জেরার মুখে বসেছিলেন আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুর্পণা সেনগুপ্তও। বৃহস্পতিবার তিনিও সকাল ১১টায় গোয়েন্দাদের জেরার মুখে বসেন। প্রায় আট ঘণ্টা তাকে জেরা করা হয়। রাত ৮টা নাগাদ গোয়েন্দা দফতর থেকে বের হন অভিনেত্রী। সে সময় ঋতুপর্ণা জানান, গোয়েন্দারা তাকে যা জিজ্ঞাসা করেছিলেন সেই মতো তিনি উত্তর দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, তার সঙ্গে যে সমস্যা ছিল সেটাও মিটে গিয়েছে বলে দাবিও করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে ভারতের সবচেয়ে আলোচিত আর্থিক কেলেঙ্কারির তথ্য ফাঁস হয়। রোজভ্যালি, সারদাসহ প্রায় শতাধিক বেআইনি আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে সাধারণ আমানতকারীদের কাছ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা তুলে নেয়। সঠিক সেই অঙ্ক জানা না গেলেও সেটা কমপক্ষে ৫০ থেকে ৬০ হাজার কোটি টাকা হতে পারে বলেও বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।