SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ২৭-০৬-২০১৯ ১৫:৩৬:১১

রোহিঙ্গাদের কারণে বাড়ি ভাড়া বাড়ছে কক্সবাজারে

cox-rent

এগারো লাখের বেশি রোহিঙ্গার আশ্রয়ের কারণে গত ২০ মাস ধরে কক্সবাজারে দেশি-বিদেশি নানা সংস্থায় কাজ করা মানুষের বসবাস বেড়েছে। আর এর প্রভাবে পর্যটন শহরে অসহনীয় হারে বাড়ছে বাড়ি ভাড়া। এতে বিপাকে পড়ছে সীমিত আয়ের সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবি ও স্থানীয় বাসিন্দারা। তবে বাড়ি ভাড়া নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে দেশ থেকে পালিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে আশ্রয় নিয়েছে ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা। তাদের জীবনমান উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি কাজ করছে দেশি-বিদেশি এনজিও সংস্থার ২০ হাজারের বেশি লোকজন।

বাড়তি এসব কর্মজীবিদের ভিড়ে নতুন সংকটে পর্যটন শহরের আবাসন ব্যবস্থা। বাড়তি চাহিদার সুযোগে কক্সবাজারে বাড়ির মালিকেরা কোনো নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করেই ভাড়া বাড়িয়ে দিয়েছেন কয়েকগুণ। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন সীমিত আয়ের সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবি ও স্থানীয় বাসিন্দারা।

বাড়ি ভাড়া নিয়ন্ত্রণে নীতিমালা করার পাশাপাশি প্রশাসনের নজরদারি বাড়ানো প্রয়োজন বলে জানালেন সুশীল সমাজেররা। অবশ্য জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জানালেন, পর্যটন নগরীর বাড়ি ভাড়া নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। বর্তমানে কক্সবাজার শহরে স্থানীয়দের পাশাপাশি বসবাস করছে ৫ লাখের বেশি বাড়তি মানুষ।