SomoyNews.TV

ভোটের হাওয়া

আপডেট- ২১-০৬-২০১৯ ১০:৩৮:০৮

নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় জমজমাট বগুড়া-৬

by-election-up

আগামী ২৪ জুন অনুষ্ঠেয় বগুড়া-৬ আসনের উপ-নির্বাচন সামনে রেখে প্রচার-প্রচারণায় আর জনসংযোগে মুখর অলিগলি। সকাল থেকে রাত রাত পর্যন্ত চলছে নিজ নিজ মার্কায় ভোট প্রার্থনা। দলীয় নেতাদের সাথে নিয়ে ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। দিচ্ছেন উন্নয়নের নানা প্রতিশ্রুতি আর ভোটাররাও খুঁজছেন যোগ্য প্রার্থী।

বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেওয়ায় গত ৩০ এপ্রিল বগুড়া সদর-৬ আসনটি শূন্য হয়। ৮ মে এ আসনের উপনির্বাচনের তফসীল ঘোষণা হয়। উপনির্বাচনে বিএনপি, আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টিসহ সাত প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। 

প্রতীক বরাদ্দের পর নির্বাচনী প্রচারণা জমে উঠেছে। প্রত্যেক প্রার্থীই ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে তাদের সক্ষমতা এবং উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। 

ভোটের পরিবেশ নিয়ে অভিযোগ নেই কোনো প্রার্থীর। তবে জয়ের ব্যাপারে সবাই আশাবাদী। 

বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ বলেন, ভোটাররা ভোট দেবার জন্য উচ্ছ্বসিতভাবে অপেক্ষা করছেন। তারা আর কিছু চায় না, চায় শুধু বেগম জিয়ার মুক্তি।
 
আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী টি জামান নিকেতা বলেন, বর্তমান সরকার সুষম উন্নয়নে বিশ্বাস করে। কিন্তু সরকার দলীয় প্রতিনিধি না থাকার কারণে উন্নয়ন কাজগুলো সেভাবে বেগবান হয় না। 

জাতীয় পার্টি সমর্থিত প্রার্থী নূরুল ইসলাম ওমর বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ এখনো পর্যন্ত ভালো আছে। কোনো পক্ষপাতিত্ব করছে বলে আমার মনে হয় নি। প্রশাসন নিরপেক্ষভাবে কাজ করছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠু বলেন, আমার মনে হয়েছে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন হয়েছে। 

ভোটারও খুঁজছেন সৎ ও যোগ্য প্রার্থী, যারা সুখে দুঃখে তাদের কাছে থাকবেন। তারা বলেন, যাদের মধ্যে দেশপ্রেম আছে তেমন মানুষই প্রতিনিধি হোক। সাধারণ মানুষের কথা যে সংসদে তুলে ধরবে তেমন ব্যক্তিকেই নির্বাচিত করতে চান তারা। চান সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হোক।

নির্বাচন  সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ইতোমধ্যেই সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করাসহ ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট গ্রহণের আনুষঙ্গিক সব ব্যবস্থার কথা জানালেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ। 

বগুড়া সদর আসনে মোট ভেটার ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪শ ৫৮ জন। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৪১টি।