SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৫-০৬-২০১৯ ১৬:১২:৪৩

প্রতিবন্ধীকে নির্যাতন: এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা

kisorgange-somoy

 

কিশোরগঞ্জের তাড়াইে সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তার বিলাসবহুল বাড়ির ছাদে উঠায় মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরকে মধ্যযুগীয় নির্যাতনের মামলায় বাড়ির মালিক মোখলেসুর রহমান খান শাহানকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনার এক সপ্তাহ পরও তিনি এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে। সম্পদশালী এবং এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছেনা বলে অভিযোগ নির্যাতনের শিকার ছেলেটির পরিবারের।

অপর দিকে এ মামলায় গ্রেফতার হওয়া বাড়ির কেয়ারটেকার সাজ্জাদ হোসেন হিটলারকে ২ দিনের পুলিশ রিমান্ড শেষে জেলাহাজতে পাঠানো হয়েছে। গত মঙ্গলবার হিটলারকে আদালতে সোপর্দ করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে কিশোরগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ওবায়দা খানম দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ৬ জুন জেলার তাড়াইল উপজেলার দক্ষিণ শামুকজানি  গ্রামের কেন্তু মিয়ার ছেলে মানসিক প্রতিবন্ধী মোশারফ হোসেন (১৮)কে হাতে-পায়ে বেঁধে বেধড়ক মারপিট করা হয়। ওই দিন পার্শ্ববর্তী দড়ি জাহাঙ্গীরপুর এলাকায় কোটিপতি সাবেক কাস্টম  অফিসার মোখলেসুর রহমান খান শাহানের বাড়ির ছাদের উপর উঠে পড়েন মোশারফ।

এ সময় বাড়ির মালিকের উপস্থিতিতে কেয়ারটেকার সাজ্জাদ হাসান হিটলার মোশারফকে ছাদ থেকে নামিয়ে আনেন। এরপর বাড়ির আঙ্গিনায় একটি খোলা জায়গায় ফেলে তার হাতে-পায়ে বেঁধে মধ্যযুগীয় বর্বরতা চালায়। প্রায় ২৫ মিনিট পর্যন্ত তাকে পিটানো হয়। ঘটনাস্থলে শতাধিক লোক থাকলেও কেউ ছেলেটিকে উদ্ধারে এগিয়ে যায়নি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া নির্যাতনের ভিডিওতে দেখা যায়, মারপিটের সময় ওই কিশোর বাঁচার জন্য আকুতি করলেও মন গলছিলনা বাড়ির মালিকসহ অন্যদের। বাড়ির কেয়ারটেকার সাজ্জাদ হাসান হিটলারসহ ৮/১০ জন এ নির্যাতনে অংশ নেয়। হিটলার পূর্ব দড়ি জাহাঙ্গিরপুর গ্রামের নূর হোসেনের ছেলে। এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়। পরদিন এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে স্থানীয়রা।

নির্যাতনের শিকার প্রতিবন্ধী কিশোর মোশারফকে প্রথমে তাড়াইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পরে তাকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায়  মোশারফের বড় ভাই সাদ্দাম হোসেন বাদী হয়ে ঘটনার ওই দিন রাতেই বাড়ির মালিক ও কেয়ারটেকারসহ তিনজনকে আসামি করে  তাড়াইল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর আটক করা হয়, অভিযুক্ত সাজ্জাদ হাসান হিটলারকে।

তাড়াইল থানার ওসি মো. মুজিবুর রহমান জানান, ‘ হিটলারকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’ বাড়ির  মালিকসহ ঘটনায় জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।