SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৫-০৫-২০১৯ ১৩:৩৬:০৬

প্রায় দুই কিলোমিটার দৃশ্যমান পদ্মাসেতু

padma-today-up-jpg-2

তীব্র স্রোত আর প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যেই অবশেষে বসানো হলো পদ্মা সেতুর ১৩তম স্প্যান। নদীর মাওয়া প্রান্তের ১৪ ও ১৫ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যানটি বসানোর মধ্য দিয়ে দুই প্রান্ত মিলে এখন দৃশ্যমান প্রায় দুই কিলোমিটার সেতু।

বর্ষার এখনো অনেক দেরী তারপরও নদীতে তীব্র স্রোত ঢেউ এর সাথে পাল্লা দিয়ে সামনে এগিয়ে চলা বেশ কঠিন কাজ। আগের দিন এই পথেই মাওয়ার ইয়ার্ড থেকে দেড় কিলোমিটার বেশি পথ পাড়ি দিতে হয়েছে ৩৬শ’ মেট্রিক টন ওজনের পদ্মা সেতুর স্প্যান। তবে নদীর স্রোতের কারণে কাজ শুরু করতে যথেষ্ট দেরি হওয়ায় স্পেন বসানোর কাজ স্থগিত করতে হয়। 

শনিবার সকালে তাই নতুন চ্যালেঞ্জ এর আগে নদীর জাজিরা প্রান্তে কৃত্রিম চ্যানেলের মধ্যে স্প্যান বসানো হলেও ট্রাক বর্ষায় তীব্র স্রোতের মধ্যে মাওয়া প্রান্তের মূল নদীতে এটাই প্রথম বারের মতো স্প্যান বসানো হলো। ঘোর বর্ষায় কতোটা সক্ষমতার মধ্যে কাজ করবেন এখান প্রকৌশলীরা তার একটা পরীক্ষাও বটে। বেশ ভালোভাবে উতরেও গেলেন সেই পরীক্ষায়। শনিবার সকাল ৮টা শুরু করে দুই ঘণ্টার মধ্যে বসিয়ে দেওয়া সম্ভব হলো পদ্মা সেতুর স্প্যান। সেতুর ৩ নম্বর মডিউলের ২য় স্প্যান এটি। 

সাধারণ মানুষ বলেন, সারা দেশের মানুষ তাকিয়ে আছে কবে কাজটা শেষ হবে। এর মাধ্যমে দেশের বড় উন্নয়ন হবে বলে তারা মনে করেন। 

পরিকল্পনা ছিল চলতি মাসে ৩টি স্প্যান তুলার কিন্তু দুটি স্পেন পাশাপাশি বসানোর সময় যে লিপটিং ক্র্যান ব্যবহার করা হয় সেটিতে জটিলতা দেখা দেওয়ায় বিলম্ব হলেও ১৩তম স্প্যান বসানোই। 

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা যারা গাড়ি চালাই, যন্ত্র, কারখানা চালাই তারা জানে যন্ত্রপাতি নষ্ট হতেই পারে। আমরা যারা কাজ করি তারা জানিই যন্ত্রপাতি একটা সময়ে শতভাগ কাজ করবে না। 

স্বল্পতম সময়ের মধ্যে এর পরের স্প্যানটি বসানো হবে জাজিরা প্রান্তে অস্থায়ীভাবে নির্মিত প্লাটফর্মের উপর। সেখানে এক সাথে ৩টি স্প্যান অস্থায়ীভাবে নিয়ে রাখা হবে।