SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon অন্যান্য সময়

আপডেট- ১৯-০৩-২০১৫ ০৮:১৩:২১

কেমন কাটছে কিশোর মুক্তিযোদ্ধা খালেকুজ্জামানের দিনকাল!

71-child-fight

বইয়ের পাতায়, প্রচারণায়, ফলক তৈরিতে যে তিন কিশোর মুক্তিযোদ্ধার ছবিটি সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় তাদের একজন খালেকুজ্জামান। ৭১-এ ৭ম শ্রেণীতে পড়ুয়া সেই কিশোর মুক্তিযোদ্ধা সময় টিভিকে জানালেন, ৪৪ বছরর পর স্বাধীন বাংলাদেশে মুক্তিযোদ্ধাদের দুঃখ, দুর্দশার কথা। বলেছেন, রণাঙ্গনে থাকা সঙ্গী কিশোর মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান আর নতুন প্রজন্মের কাছে তাদের প্রত্যাশা নিয়ে।

৭১'র কিশোর মুক্তিযোদ্ধা খালেকুজ্জামান। গত ৪৪ বছরে কোনও উপাধি না পেলেও লোকচক্ষুর আড়ালে থাকা গর্বিত এই মুক্তিযোদ্ধা এক বিশেষ সাক্ষাতকারে ৭১'র সকল মুক্তিযোদ্ধাদের হয়ে জানালেন স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনার গল্প, বলেছেন চাপা অভিমানের কথা।

মুক্তিযোদ্ধা খালেকুজ্জামান বলেন, 'আমি তখন সপ্তম শ্রেণীতে পড়ি, পাকিস্তানিদের অত্যাচার নিপীড়ন দেখে আমি সহ্য করতে পারি না। তখন সরাসরি আমাদের গ্রামের আমরা চল্লিশ জন ভারতে চলে যায়। আমার সিরিয়াল ছিল ৭১১। আমি প্রথম ব্যাচের মুক্তিযোদ্ধা। শুধু মুক্তিযোদ্ধা নই আমি তাদেরকে ট্রেনিং দিয়ে দেশে পাঠিয়েছিলাম। রণাঙ্গনে অনেক বীরত্বের পরিচয় দিয়েছিলাম কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমি কোনও উপাধি পাইনি, খেতাব পাইনি। তবুও আমার গর্ব আমি একটা বিজয় পতাকা উড়িয়েছি। আমি একটা স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র এনে দিয়েছি।'

তিনি আরও বলেন, '২০০৫ সালে সন্ত্রাসী দল প্রকাশ্য দিবালোকে আমার বাড়ি-ঘর লুটপাট করেছিল। আমার বাড়ির সম্মুখে একটা শহীদ মিনার করেছিলাম। সেই শহীদ মিনারকে নিয়ে কটূক্তি করতো। তারা বলতো এটা কি তোর বাবার কবর! তারা শহীদ মিনারকে ভেঙ্গে সাগরে ভেলে দিয়েছে।'

খালিকুজ্জামান বলেন, 'আমরা একটা বৃহত্তম শক্তি থেকে মুক্তি হয়েছি কিন্তু পূর্ণাঙ্গ স্বাধীনতা এখনও পাইনি। সরকারের কাছে আমার আকুল আবেদন, নতুন প্রজন্মকে জাগ্রত করার আগে মুক্তিযোদ্ধাকে জাগ্রত করতে হবে। মুক্তিযোদ্ধারা কি অবস্থায় আছে সেইটা আগে দেখতে হবে। মুক্তিযোদ্ধার সঠিক তালিকা করতে হলে প্রবীণ ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসা করতে হবে, এই গ্রামে কয়জন সঠিক মুক্তিযোদ্ধা ছিল। আমরাতো যুদ্ধের ময়দানে ছিলাম এসে দেখি তারা আমাদের আগেই মুক্তিযোদ্ধা হয়ে গেছে। তারা ভাতা পাচ্ছে সরকারি সুবিধা পাচ্ছে। আজ কোথায় আমার দাফন হবে সে দাফনের জায়গাটুকু নেই।'

বিভিন্ন গবেষণাপত্রে দেখা যায়, ৭১ এ গণ-যোদ্ধাদের মধ্যে প্রায় ২৩ শতাংশই ছিলো শিশু কিশোর। তাই যেসব শিশু কিশোর মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গনে অংশ নিয়েছিলেন তাদের মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সম্মান না দিলে অসম্পূর্ণ থাকবে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এমনটাই মনে করছেন এই কিশোর মুক্তিযোদ্ধা।

তিনি বলেন, 'যে কষ্টে অর্জিত এই স্বাধীনতা। এই নতুন প্রজন্ম যদি মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তারা জানতো। তাহলে তারা এটা নিয়ে অনেক গর্ব করতো।'