SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৩-০২-২০১৯ ০৩:৫৯:৪৭

তামাক চাষে হুমকিতে ফসলের আবাদ

rang-tobacco

জীবনঘাতী নিকোটিন সমৃদ্ধ তামাকের কালো ছায়া গ্রাস করছে শস্য ভান্ডার রংপুরের সুজলা, সুফলা ফসলের ক্ষেত। আর মরণব্যাধি ক্যানসারের অন্যতম উপাদান হলেও বাজারজাতের নিশ্চয়তা থাকায় তামাক চাষিদের নিরুৎসাহিত করা যাচ্ছে না বলে দাবি কৃষি বিভাগের।  
 

রংপুর সদরের চিলমারী। ফসল নয়, মাঠে মাঠে বাড়ন্ত তামাকের চারা। সবুজের আড়ালে প্রতিটি পাতা আর শিরা, উপশিরায় বিষাক্ত নিকোটিন নিয়ে বেড়ে উঠছে একেকটি তামাকের গাছ। বিভিন্ন কোম্পানির বাড়তি সুবিধা পেয়ে দু'পয়সা বেশী রোজগারের আশায় এখানে বিষ ফলান চাষিরা।

রংপুরের পাশাপাশি লালমনিরহাট, গাইবান্ধা ও নীলফামারীতেও ক্রমান্বয়ে বাড়ছে জীবনসংহারী তামাকের আবাদ। তামাক ঠেকাতে হলে ধান, আলুসহ কৃষি ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত ও আইনের প্রয়োগ চান সচেতনমহল।

তামাক নিয়ন্ত্রণ কোয়ালিশনের ফোকাল পারসন সুশান্ত ভৌমিক বলেন, আইন আছে, সেটার প্রকৃত ব্যবহার করতে পারলে তামাক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। 

সচেতনতার মধ্য দিয়ে চাষিদের তামাক চাষে নিরুৎসাহিত করতে চাইলেও সম্ভব হচ্ছেনা বলে দাবি কৃষি বিভাগের।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, মার্কেটের যে নিশ্চয়তা আছে সেটা আমরা নিরুৎসাহিত করতে চাইলেও তারা চাষ থেকে ফিরে আসছে না। 

রংপুর অঞ্চলের চার জেলায় এবার ১৩ হাজার ৭শ' ৮৭ হেক্টর জমিতে তামাকের চাষ হয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি লালমনিরহাটে।