SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ০৫-১০-২০১৮ ০৯:৫৫:২০

মাগুরায় নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় লাখো দর্শক

boat-ride

মাগুরার মহম্মদপুরের মধুমতি নদীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা। এ উপলক্ষে মধুমতি নদীর দুই তীরে জড়ো হন লাখো দর্শক। নৌকা বাইচকে কেন্দ্র করে বসেছে গ্রামীণ মেলাও। বাংলার ঐতিহ্যবাহী এ খেলা দেখতে আসা সবার দাবি, এমন আয়োজন করা হোক প্রতি বছর।


এ যেন ছুটে চলার অবিরাম চেষ্টা। কাশা আর বাদ্যের তালে মেতেছে দর্শকরাও। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা নৌকা বাইচকে কেন্দ্র করে লাখো মানুষের মিলনমেলা বসেছে মাগুরার মহম্মদপুরের মধুমতি নদীর তীরে।

বাংলার ঐতিহ্যবাহী এ প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে মধুমতি নদীর দুপাড়ে নামে মানুষের ঢল। আশপাশের বিভিন্ন জেলার নানা বয়সের লক্ষাধিক মানুষ জড়ো হন এ প্রতিযোগিতা দেখতে।

দর্শকরা বলেন, 'নৌকাবাইচ দেখতে এসে খুব আনন্দ লাগছে। আমরা উপভোগ করছি। টানটান উত্তেজনা সৃষ্টি হচ্ছে। দুই দিকে শুধু দর্শক আর দর্শক।'

নবনির্মিত শেখ হাসিনা সেতুর নিচে নদীপথের প্রায় তিন কিলোমিটার জুড়ে অনুষ্ঠিত হয় এ প্রতিযোগিতা। নৌকা বাইচকে কেন্দ্র করে নদীর পাড়ে বসে গ্রামীণ মেলাও।

স্থানীয়রা বলেন, 'নৌকাবাইচ উপলক্ষে এখানে মেলা বসেছে। নাগরদোলা চলছে। উৎসব মুখর পরিবেশ। সামনের বার যে আরো সুন্দর হয়।'

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীরা দাবি করেন, 'এবারের মতো যেনো প্রতিবছর এমন আয়োজন করা হয়।'

নৌকা বাইচের উদ্বোধন করে যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী বললেন গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে অব্যাহত থাকবে এ ধরনের প্রতিযোগিতা।

যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার বলেন, 'আমাদের নৌকাবাইচ, ঘৌড় দৌড়ের মেলা এগুলো দেশীয় সংস্কৃতি। বাঙালি হিসেবে আমাদের এই ঐতিহ্যগুলো ধরে রাখতে হবে। বিশ্বের মাঝে বাঙালি ঐতিহ্য তুলে ধরতে চাই।'

নৌকা বাইচে অংশ নেয় আশপাশের বিভিন্ন জেলার ৩২টি নৌকা। বিজয়ী হয় খুলনা থেকে আসা জলকুড়ি দল।