SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon বাংলার সময়

আপডেট- ১৭-০৯-২০১৮ ০৩:১৭:৩৭

সমিতির নামে কোরবানির পশু কেনার টাকা আত্মসাৎ

gai-money-dis

কোরবানির পশু কেনার জন্য ব্যবসায়ীদের জমানো প্রায় ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনা গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের বালুয়ায়।ব্যবসায়ীদের জমাকৃত টাকা নিয়ে কর্মচারী উধাও হওয়ায় গেলো ঈদে কোরবানির পশু কিনতে পারেননি তাদের অনেকে।থানায় অভিযোগ দিলেও প্রতিকার মেলেনি।  
 
গোবিন্দগঞ্জের বালুয়া বাজারে প্রায় ২০ বছর ধরে কোরবানি স্কিম সমিতিতে টাকা জমিয়ে কোরবানির পশু কেনেন ব্যবসায়ীরা। সুদের টাকায় কোরবানি হবেনা- এই বিশ্বাসে ব্যাংকে না রেখে টাকা তোলা ও জমা রাখার দায়িত্ব দেয়া হয় বাবলু মিয়াকে।

বাবলু থাকতো স্থানীয় ব্যবসায়ী বিমান তার ভাই আনারুল ও মাহাবুবের বাড়ীতে। টাকা না দিয়ে গেলো কোরবানি ঈদের আগে বাবলুকে সরিয়ে দেয় বিমান ও তার ভাইয়েরা, অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।

তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেন বিমানের ভাই আনারুল।

গেলো ঈদে জমানো টাকা না পেয়ে কোরবানির পশু কিনতে পারেননি ব্যবসায়ীদের অনেকেই। এ ব্যাপারে গোবিন্দগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও কোন সুরাহা করতে পারেনি পুলিশ। এঘটনায় তদন্ত চলছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা।

মজিবুর রহমান (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, গোবিন্দগঞ্জ) বলেন, একটা লিখিত অভিযোগ আমরা পেয়েছি। তাকে আমরা খুঁজছি, পাওনা টাকা না দিলে যা ব্যবস্থা নেয়ার তা-ই নেয়া হবে।

বাবলু মিয়ার বাড়ী গাইবান্ধার সাঘাটায় গিয়েও তাকে পায়নি ব্যবসায়ীরা। ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীদের পক্ষে প্রথমে মৌখিক এবং পরে লিখিতভাবে থানায় অভিযোগ করেন আব্দুস সামাদ মিয়া।