SomoyNews.TV

ভ্রমণ

আপডেট- ১৫-০৬-২০১৮ ০১:৪১:১১

রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো ঈদের জন্য প্রস্তুত

eid-binodon-jpg-ed

ঈদের জন্য প্রস্তুত রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো। পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার দিকেই বেশি নজর দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া উৎসব কেন্দ্র করে নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বিনোদন কেন্দ্রগুলো কঠোর নজরদারিতে রাখা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র।

চিড়িয়াখানায় এসেছে দু'জোড়া ধূসর সিংহ, এক জোড়া ভল্লুক, ক্যাঙ্গারুসহ বেশ কয়েকটি প্রাণী। এই আয়োজন ঈদকে কেন্দ্র করে। অন্যান্য বন্ধের দিন যখন দর্শনার্থীর সংখ্যা অর্ধলক্ষাধিক ছাড়ায় তখন ঈদ মৌসুমে চিড়িয়াখানায় তা বাড়ে তিনগুণ। এই বিপুল দর্শনার্থীর কথা মাথায় রেখেই প্রস্তুতি সেরেছে জাতীয় চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। এছাড়া হরিণ, গণ্ডার তো আছেই, সেইসঙ্গে আষাড়ের আবহ থাকলে ময়ূরের পেখম মেলার মুহূর্তও পেয়ে যেতে পারেন দর্শনার্থীরা।

এবার ঈদের দিন থেকে সাত দিনের টানা পরিকল্পনা জাতীয় চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের। চলছে শেষ মুহূর্তের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ।

বাংলাদেশ জাতীয় চিড়িয়াখানা কিউরেটর ড. এস এম নজরুল ইসলাম, 'দর্শণার্থীর জন্য ৩ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। যাতে তারা এসে বিড়ম্বনায় না পড়েন।'

ঢাকার চিড়িয়াখানাই শুধু নয়, শিশুদের জন্য বিনোদনের পাশাপাশি সুন্দর পরিবেশ নিশ্চিত করতে চান শিশুপার্ক কর্তৃপক্ষও। তাই শিশুদের জন্য রাইডগুলো রঙিন করে তোলার পাশাপাশি ঘাষগুলোও পরিপাটি করার কাজ চলছে। টানা সাতদিন শিশুদের বিনোদনের জন্য খোলা রাখা হবে বিনোদন কেন্দ্রগুলো।

শিশু পার্ক তত্ত্বাবধায়ক মো. শফিউদ্দিন বলেন, 'সবাই একসঙ্গে কাজ করছে। ঈদে যারা আসবে এখানে তারা পরিচ্ছন্ন পরিবেশ পাবে।'

এদিকে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন জানায়, ঈদে রাজধানীতে যারা থাকবেন তারা যেনো নিরপদে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ঘুরতে পারেন সেজন্য নজরদারি বাড়ানো হবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, 'আশা করি নগরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারবো।'

রাজধানীতে বিনোদনের অন্যতম অনুষঙ্গ বড় পর্দায় সিনেমা উপভোগ। দর্শকদের জন্য এরই মধ্যে নতুন ছবি প্রদর্শনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে প্রেক্ষাগৃহগুলো।